শ্রদ্ধা যদি কাউকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে, আমি আপত্তি করব না: শক্তি কাপুর

শ্রদ্ধা যদি কাউকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে, আমি আপত্তি করব না: শক্তি কাপুর
বহুদিন ধরেই বলিপাড়ায় ফিসফাস চলছে রোহন-শ্রদ্ধার সম্পর্ক নিয়ে । কিন্তু দু’জনের কেউই এ ব্যাপারে কখনও প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি । এ বার মুখ খুললেন খোদ কনের বাবা ।

বহুদিন ধরেই বলিপাড়ায় ফিসফাস চলছে রোহন-শ্রদ্ধার সম্পর্ক নিয়ে । কিন্তু দু’জনের কেউই এ ব্যাপারে কখনও প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি । এ বার মুখ খুললেন খোদ কনের বাবা ।

  • Share this:

    #মুম্বই: বরুণ ধাওয়ান ও নাতাশা দালালের বিয়ে নিয়ে প্রথম থেকেই ছিল নানা হইচই ৷ সেই বিয়ের রেশ কাটতে না কাটতেই বলিপাড়ায় ফের একাধিক বিয়ের গুঞ্জন । লাইনে রয়েছেন রণবীর কাপুর-আলিয়া ভাট, অর্জুন কাপুর-মালাইকা আরোরা, শ্রদ্ধা কাপুর-রাকেশ শ্রেষ্ঠা । প্রতিটি হেভি ওয়েট বিয়ে ঘিরেই এখন ভক্তদের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে ।

    এরই মধ্যে শ্রদ্ধার বাবা শক্তি কাপুর মেয়ের বিয়ে নিয়ে ইতিবাচক মন্তব্য করে জল্পনা আরও খানিকটা বাড়িয়ে দিলেন । রোহন মুম্বইয়ের বিখ্যাত সেলিব্রিটি ফোটোগ্রাফার । বহুদিন ধরেই বলিপাড়ায় ফিসফাস চলছে রোহন-শ্রদ্ধার সম্পর্ক নিয়ে । কিন্তু দু’জনের কেউই এ ব্যাপারে কখনও প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি ।

    ইতিমধ্যেই বরুণ-নাতাশার বিয়েতে রোহনের একটি কমেন্ট এবং তার বরুণের দেওয়া একটি উত্তরকে ঘিরে জল্পনার মেঘ আরও ঘনীভূত হয়েছে । বরুণ-নাতাশার বিযের ছবিতে রোহন কমেন্ট করেছিলেন, ‘‘কনগ্র্যাচুলেশন বরুণ-নাতাশা । তুমি আত্মপ্রত্যয়ী। নিজে যেটা জানো সেটা নিয়ে নিশ্চিত তুমি। বরুণ তুমি সত্যিই খুব ভাগ্যবান ।’’ এর উত্তরে বরুণ লেখেন, ‘‘সত্যিই আমি ভাগ্যবান । আশা করি, তুমিও প্রস্তুত আছো ।’’ এই পোস্ট দেখার পর থেকেই নেটিজেনরা অনুমান করতে শুরু করে দিয়েছেন, শীঘ্রই হয়তো শ্রদ্ধা-রোহনের বিয়ের সানাও বাজবে ।


    এ বার অবশ্য মুখ খুললেন খোদ কনের বাবা । সম্প্রতি TOI-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে শক্তি কাপুর বলেন, এই ব্যাপারটি যদি সত্যি হয় তা হলে তাঁর কোনও আপত্তি নেই । তাঁর মেয়ে সত্যিই যদি কাউকে ভালবেসে বিয়ে করতে চায়, তা হলে তিনি তাতে বাধা দেবেন না । তবে এর পাশাপাশি তিনি এও বলেন, ইন্টারনেটে যা যা খবর ঘুরছে তার সত্যতা সম্পর্কে তিনি বিষদে কিছু জানেন না । কিন্তু তা যদি সত্যি হয়, তা হলে মেয়ের পাশে তিনি সবসময় থাকবেন ।

    শক্তি কাপুর মেয়ের ব্যাপারে যতটা রক্ষণশীল, ততটাই আবার খোলামেলাও । সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‘শুধু রোহন শ্রেষ্ঠা বলে নয় । যদি অন্য যে কাউকে এনে শ্রদ্ধা বলত যে, এই ছেলেকেই সে বিয়ে করতে চায় । হাসি মুখে মেয়ের সেই সিদ্ধান্তেই রাজি হতাম ।’’

    তবে রোহনকে বহু বছর ধরেই চেনে কাপুর পরিবার । দুই পরিবারের মধ্যে বহু বছর ধরে সু-সম্পর্ক রয়েছে । রোহনের বাবা রাকেশ শ্রেষ্ঠার সঙ্গে কাজও করেছেন শক্তি । দু’জনের বন্ডিংও বেশ ভাল । পাশাপাশি বন্ধুপুত্র রোহনকেও পছন্দ করেন শক্তি । নিজেই জানালেন, ‘‘রোহন খুবই ভাল ছেলে । ছোট থেকেই সে আমাদের বাড়িতে যাতায়াত করত । যদিও শ্রদ্ধা আমাকে রোহনকে বিয়ে করার কথা কিছু জানায়নি । আমার তো মনে হয় ওঁরা এখনও সেই চোটবেলার বন্ধুর মতোই আছে । শ্রদ্ধা আর রোহন যদি নিজেদের সম্পর্কের বিষয়ে সিরিয়াস হয়, তা হলে সে ব্যাপারে আমার কিছু জানা নেই ।

    Published by:Simli Raha
    First published: