Milind Soman-Ankita Konwar: ২৬ বছরের বড় পুরুষকে বিয়ে করা নিয়ে মুখ খুললেন মিলিন্দের স্ত্রী অঙ্কিতা! কী বললেন?

মিলিন্দ সোমন ও অঙ্কিতা কোনওয়ার।

নিজের থেকে বয়সে এতটা বড় কাউকে কেন বিয়ে করলেন অঙ্কিতা কোনওয়ার (Ankita Konwar)? এই বাঁধাধরা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে এবার আসল কথাটা শেয়ার করলেন মিলিন্দ সোমনের (Milind Soman) ঘরণী।

  • Share this:

    #মুম্বই: নিজের থেকে বয়সে ২৬ ভছরের বড় কাউকে কেন বিয়ে করলেন ২৯ বছরের অঙ্কিতা কোনওয়ার (Ankita Konwar)? এই বাঁধাধরা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে এবার আসল কথাটা শেয়ার করলেন মিলিন্দ সোমনের (Milind Soman) ঘরণী। অজানা কাজে এগিয়ে যেতে বরাবরই মানুষ ঘাবড়ে যান বলেই মত অঙ্কিতার। তবে তিনি বরাবরই নিজের মন যাতে খুশি হয়, তেমন কাজই বেছে নেন বলে জানিয়েছেন অঙ্কিতা।

    বুধবার ইনস্টাগ্রামে 'আস্ক মি এনিথিং' সেশনে যোগ দিয়েছিলেন অঙ্কিতা। সেখানেই এক ভক্ত অঙ্কিতাকে জিজ্ঞেস করেন, 'ভারতীয় বাঁধাধরা মানসিকতা বয়স্ক পুরুষকে বিয়ে করা যাবে না, এই সিদ্ধান্তকে কী ভাবে সামাল দেন আপনি?' অঙ্কিতা এই প্রশ্নেরই গুছিয়ে জবাব দিয়েছেন। তাঁর কথায়, 'সমাজে যা কিছুই স্বাভাবিক নয়, মানুষ সেগুলি নিয়েই বেশি কথা বলতে পছন্দ করেন। এবং এটা শুধু ভারতেই সীমাবদ্ধ নয়। আমাদের প্রত্যেকেরই অজানার প্রতি একটা ভয় কাজ করে। এটাই বেঁচে থাকার নিয়ম। তবে এমনটা করতে গিয়ে অনেক সময়ই আমরা কোনটা কাজে লাগছে আর কোনটা নয় তা গুলিয়ে ফেলি। আমি সর্বদা সেটাই করেছি যা আমাকে আনন্দ দেয়।'

    অঙ্কিতার জবাব। অঙ্কিতার জবাব।

    গত এপ্রিলেই বিয়ের তিন বছরের বিবাহবার্ষিকী পালন করেছেন মিলিন্দ সোমন ও অঙ্কিতা কোনওয়ার। মিলিন্দ ইনস্টাগ্রামে তাঁদের বিয়ের একাধিক ছবি শেয়ার করে সেখানে লিখেছিলেন, '৩ বছর!!! হ্যাপি অ্যানিভার্সারি অঙ্কিতা, এখনও মনে হয় কালই সব হয়েছে। এটা মনে পড়লেই আমার হৃদয়টা হেসে ওঠে।' ২০১৮ সালের মুম্বইতে একেবারে পারিবারিক বন্ধুদের সঙ্গে বিয়ের অনুষ্ঠান করেছিলেন তাঁরা। মিলিন্দের থেকে অঙ্কিতা বয়সে ২৬ বছরের ছোট হওয়ায় প্রথম থেকেই তাঁদের বিয়ে করা নিয়ে নানা কটূক্তি শুনতে হয়েছে তাঁদের। যার রেশ এখনও কাটেনি।

    বিয়ের পর পরই একটি বিজ্ঞাপনের শ্যুটিংয়ের মিলিন্দ ও অঙ্কিতাকে এ নিয়েই বলতে শোনা গিয়েছিল। শ্যুটিংয়ে মিলিন্দ বলেছিলেন, 'আমার মনে হয় প্রতিটি মানুষের পছন্দের মানুষ, ভালোবাসার মানুষ খুঁজে নেওয়ার অধিকার রয়েছে এবং তা শুধুমাত্র অনুভূতির উপর নির্ভর করে। এখানে সমাজ কখনওই গুরুত্ব পেতে পারে না।'

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: