corona virus btn
corona virus btn
Loading

পরিযায়ী শ্রমিকের কষ্ট কাঁদিয়েছিল, ওঁদের জন্য একদিন মুখে খাবার তোলেননি ইরফান

পরিযায়ী শ্রমিকের কষ্ট কাঁদিয়েছিল, ওঁদের জন্য একদিন মুখে খাবার তোলেননি ইরফান
দিন কয়েক আগেও ভারতের পরিযায়ী শ্রমিকদের হয়ে গলা তুলেছিলেন ইরফান।

ঠাঁই পেয়েছেন বহু পরিযায়ী শ্রমিক। অনেকে হাঁটতে হাঁটতে পথেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন। ইরফানও এদিন সকালে চলে গেলেন। আসলে কি গেলেন? ভুখা ভারত যতদিন, ইরফান বেঁচে থাকবেন ততদিন।

  • Share this:

ছিলেন রাজপরিবারের ছেলে। কিন্তু জীবনের বড় সময় কেটেছে লড়াই করে। এক সময়ে এসি মেকানিকের কাজও করেছেন। ফলে শিঁকড়ের সঙ্গে যোগটা ছিল আজীবনের। মৃত্যুর দিন কয়েক আগে পর্যন্ত ইরফান গলা ফাটিয়েছেন নিঃস্ব হয়েই। কোনও নেতা, কোনও দল তাঁকে কিনতে পারেনি। আয়ু যখন প্রায় ফুরিয়ে আসছে, সেই মুহূর্তেও গলা তুলেছেন দেশের অসহায় পরিযায়ী শ্রমিকদের হয়ে।

২৩ মার্চ করোনা রোধে দেশে জনতা কার্ফু জারি হয়। দেশের নানা প্রান্তে কার্যত আটকে পড়েন লাখ লাখ পরিযায়ী শ্রমিক। সঞ্চয় নেই,পরিবার বিচ্ছিন্ন অবস্থায় মৃত্যুর সঙ্গে লড়তে গিয়ে অনেকে পথে নেমে হাঁটতে শুরু করেন। এই ভুখামিছিলের শরিক হন ইরফানও।

গত ৯ এপ্রিল দেশের অভুক্ত পরিযায়ীদের সংস্থানের জন্যে ১২ ঘন্টা অভুক্ত থাকার কথা ঘোষণা করেন ইরফান টুইটারে। চারদিক থেকে সমর্থন আসতে শুরু করে তাঁর প্রস্তাবে।

ক্রমে ঠাঁই পেয়েছেন বহু পরিযায়ী শ্রমিক। অনেকে হাঁটতে হাঁটতে পথেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন। ইরফানও এদিন সকালে চলে গেলেন।

আসলে কি গেলেন? ভুখা ভারত যতদিন, ইরফান বেঁচে থাকবেন ততদিন।

First published: April 29, 2020, 4:04 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर