• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • সুশান্ত মামলার তদন্তকারী অফিসার মুম্বই পৌঁছতেই 'বলপূর্বক কোয়ারেন্টাইন', বিস্তর অসহযোগীতা মুম্বই পুলিশের

সুশান্ত মামলার তদন্তকারী অফিসার মুম্বই পৌঁছতেই 'বলপূর্বক কোয়ারেন্টাইন', বিস্তর অসহযোগীতা মুম্বই পুলিশের

বিহার পুলিশের তদন্তকারী দল মুম্বই পৌঁছনোর পর থেকেই অভিযোগ উঠছে, তদন্তে তাঁদের সাহায্য করছে না মুম্বই পুলিশ।

বিহার পুলিশের তদন্তকারী দল মুম্বই পৌঁছনোর পর থেকেই অভিযোগ উঠছে, তদন্তে তাঁদের সাহায্য করছে না মুম্বই পুলিশ।

বিহার পুলিশের তদন্তকারী দল মুম্বই পৌঁছনোর পর থেকেই অভিযোগ উঠছে, তদন্তে তাঁদের সাহায্য করছে না মুম্বই পুলিশ।

  • Share this:

    #মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পঞ্চাশ দিন পেরিয়েছে। তারপরেও প্রাণবন্ত অভিনেতার হাসিমুখ সকলের মনে উজ্জ্বল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ন্যায়  বিচারের দাবিতে চলছে প্রতিনিয়ত প্রতিবাদ। অনেকে আবার বলিউড বয়কটেরও সওয়াল করছেন। মুম্বই পুলিশ অভিনেতার আত্মহত্যার রহস্য উদ্ঘাটনে তদন্ত করলে  ২৬ জুলাই মোড় ঘুরে যায় মামলার। সুশান্তের বাবা কেকে সিং সুশান্তের বান্ধবী অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে একাধিক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এনে মামলা করেন বিহারে। এরপর থেকেই ময়দানে অবতীর্ণ হয় বিহার পুলিশ। ৪ সদস্যের তদন্তকারী দল মুম্বই পৌঁছয়।

    গত কয়েকদিনে মুম্বইয়ের রাস্তা চষে বেড়াচ্ছে বিহার পুলিশ। তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে তাঁরা । মুম্বই পুলিশও গত দেড় মাসে প্রায় ৪০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। তবে বিহার পুলিশের তদন্তকারী দল মুম্বই পৌঁছনোর পর থেকেই অভিযোগ উঠছে, তদন্তে তাঁদের সাহায্য করছে না মুম্বই পুলিশ।

    এবারের অভিযোগ আরও মারাত্মক। বিহার পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে জানিয়েছেন, তদন্তের স্বার্থে বিহার পুলিশের সিনিয়র আধিকারিক তথা পটনার পুলিশ সুপার বিনয় তিওয়ারি মুম্বই পৌঁছনোর পরেই তাঁকে জোর করে ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে বৃহন মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন (বিএমসি)। এমনকী, তাঁর হাতে কোয়ারেন্টাইনের স্ট্যাম্প দেওয়ার পর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছে।

    ডিজিপি'র আরও অভিযোগ, উচ্চপদস্থ আধিকারিক বিনয় তিওয়ারির থাকার ব্যবস্থা করেনি মুম্বই পুলিশ। আইপিএস মেসের বদলে তাঁকে গোরেগাও-এর একটি গেস্টহাউজে থাকার আবেদন জানান হয়েছে। যদিও তাঁর সাফ বক্তব্য, সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা মামলায় বিহার পুলিশই যথেষ্ট। সিবিআই তদন্তের এখনই প্রয়োজন নেই। তাঁর দাবি, পুলিশ তদন্তে অসহযোগীতা করলে পটনার এসপি-কে সাহায্য করার জন্য উচ্চপদস্থ আধিকারিককে পাঠানো হবে।

    এ দিকে, বিনয় তিওয়ারিকে জোর করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোয় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি। ট্যুইটারে তিনি লেখেন, "কী? এটা কি আদৌ সত্যি? কীভাবে একজন পুলিশ অফিসারকে তাঁর কাজের সময় ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে রাখা যেতে পারে? #JusticeForSushant."

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: