Home /News /entertainment /
Belashuru: 'বেলাশেষে' দেখাতে পারেননি মাকে, 'বেলাশুরু'-র সময়ে বাবাও নেই! আক্ষেপ অনিন্দ্যর

Belashuru: 'বেলাশেষে' দেখাতে পারেননি মাকে, 'বেলাশুরু'-র সময়ে বাবাও নেই! আক্ষেপ অনিন্দ্যর

'বেলাশেষে' দেখাতে পারেননি মাকে, 'বেলাশুরু'-র সময়ে বাবাও নেই! আক্ষেপ অনিন্দ্যর

'বেলাশেষে' দেখাতে পারেননি মাকে, 'বেলাশুরু'-র সময়ে বাবাও নেই! আক্ষেপ অনিন্দ্যর

Belashuru:একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেতা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু একটা আক্ষেপ থেকে গিয়েছে অনিন্দ্যর

  • Share this:

    #কলকাতা: মুক্তি পেয়েছে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ও নন্দিতা রায় পরিচালিত বহুপ্রতীক্ষিত ছবি 'বেলাশুরু'। 'বেলাশেষে' দেখে মুগ্ধ হয়েছিল বাঙালি। ঠিক জানো আর পাঁচটা বাঙালি পরিবারের গল্প উঠে এসেছিল সেই ছবিতে। আর তাই 'বেলাশুরু' নিয়েও দর্শকদের মধ্যে প্রবল অপেক্ষা ছিল। ছবিতে একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেতা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়। দুটি ছবিতে তার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে। কিন্তু একটা আক্ষেপ থেকে গিয়েছে অনিন্দ্যর।

    আগেই অনিন্দ্য তাঁর মা কে হারিয়েছিলেন। তাই বেলাশেষে ছবিটি দেখাতে পারেননি মা-কে। বাবাকে প্রেক্ষাগৃহে নিয়ে গিয়ে সেই ছবিটি দেখিয়েছিলেন। কিন্তু এবার বেলাশুরু মুক্তির পরে দেখাতে পারলেন না বাবাকেও। এই নিয়ে একটি আবেগঘন পোস্ট করেছেন অভিনেতা। সেই পোস্ট ভাইরালও হয়েছে।

    অনিন্দ্য লিখছেন, "বাবা বেলাশেষে দেখে বেরিয়ে বলে ছিল 'ইস তোর মাকে যদি বেলাশেষে দেখাতে পারতাম, কিন্ত সে আর হলো কই? চলে গেলো তো মানুষটা।' বেলাশুরু কালকে রিলিজ , এখন বাবাও নেই। ইস বাবা মাকে যদি দেখাতে পারতাম বেলাশুরু কিন্তু তা আর হলো কই? দুজনেই তো চলে গেলো।"

    অনিন্দ্য আরও লিখেছেন, "যাইহোক, গত আড়াই বছর ধরে আমরা অপেক্ষা করেছিলাম শুধুমাত্র কালকের দিনটার জন্য । ৭ বছর পরে একটা পরিবার আবার একসাথে পর্দায় । যার মধ্যে দুজন মহীরুহকে আমরা হারিয়েছি কিন্ত ওঁরা আছেন । বিশ্বনাথ আর আরতী হয়ে থেকে যাবেন শেষ বারের মতন । বাকিটা আপনারা বলবেন । কালকে থেকে ।"

    আরও পড়ুন- কালো বডি হাগিং গাউনে স্পষ্ট ত্বন্বীর চেহারা! 'কান'-এ ফের নজর কাড়লেন দীপিকা

    প্রসঙ্গত, এই ছবির কাজ শেষ করলেও স্বচক্ষে দেখতে পারলেন না সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। দুজনেই মহামারীতে প্রয়াত হয়েছেন। ছবিতে এছাড়াও অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, মনামী ঘোষ, খরাজ মুখোপাধ্যায়, অপরাজিতা আঢ্য প্রমুখ।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    Tags: Anindya Chatterjee

    পরবর্তী খবর