• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • ACTRESS PAYEL MITHAI SARKAR FILES COMPLAIN AGAINST A FAKE FACEBOOK PROFILE NAMELY RAVI KINAGI PB

Payel Sarkar| fake account| 'আমার সঙ্গে রাত কাটাতে হবে'! রবি কিনাগির নামে ভুয়ো আইডি খুলে, পায়েল সরকারকে কু-প্রস্তাব !

photo source Payel Mithai sarkar Facebook

Payel Sarkar| fake account| কাজ দেওয়ার নাম করে টেলি অভিনেত্রী পায়েল মিঠাই সরকারকে কু-প্রস্তাব ! ফেক ফেসবুক অ্যাকাউন্টের নামে অভিযোগ অভিনেত্রীর।

  • Share this:

    #কলকাতা: সোশ্যাল মিডিয়া (social media)  মানেই আজকাল বেশ কিছু উটকো ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে মানুষকে। বাদ যাচ্ছেন না টলি-বলি নায়িকারাও। সোশ্যাল মিডিয়ায় তৈরি ভুয়ো প্রেমের জালে পা দিয়ে অনেকের অনেক ক্ষতিরি হয়েছে। সে সব খবর মাঝে মধ্যেই সামনে আসে। আর কাজ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে নায়িকাকে কু-প্রস্তাব দেওয়ার মতো ঘটনাও সামনে এল। টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পায়েল মিঠাই সরকারের (Payel sarkar)  সঙ্গে এমনটাই হয়েছে।

    টলিউডের জনপ্রিয় পরিচালক রবি কিনাগির (Ravi kinagi) নামে ভুয়ো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে, সেখান থেকে কু-প্রস্তাব পাঠানো হয় অভিনেত্রীকে। অভিনেত্রী বিষয়টা বুঝতে পেরেই তা ফেসবুকে তুলে ধরেন। জানা যায়, হঠাৎ করেই সকাল বেলা ফেসবুক খুলে দেখেন রবি কিনাগি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছেন। টলিউডে কাজ করার সূত্রে পায়েল প্রথমে বেশ খুশিই হন। কারণ রবি কিনাগি বেশ জনপ্রিয় পরিচালক। দেব থেকে কোয়লে অনেকেই কাজ করেছেন তাঁর পরিচালনায়। তবে কিছুক্ষণ কথা বলার পরেই পায়েল বুঝতে পারেন, এটা ভুয়ো অ্যাকাউন্ট। কেউ রবি কিনাগির নাম করে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলে তাঁকে ফাসানোর চেষ্টা করছে। প্রথমেই ওই ব্যক্তি কাজ নিয়ে কথা বলতে শুরু করেন। লেখে, 'তোমার জন্য একটা কাজ ভেবেছি'। যা দেখে , পায়েল (payel sarkar) ডিটেইলস জানতে চান। তখন ওই ভুয়ো ব্যক্তি লেখে, "কাজ দিবো, তার আগে তোমায় আমার সঙ্গে রাত কাটাতে হবে।" এটা পড়েই পায়েলের বুঝতে দেরি হয় না, যে এটা একটা নকল অ্যাকাউন্ট।

    পায়েল সঙ্গে সঙ্গে কথোপকথোনের স্ক্রিনশট নিয়ে ফেসবুকে শেয়ার করেন। এবং সেখানে ওই ভুয়ো প্রোফাইলের লিঙ্কও দেন। পায়েল লেখেন, "আজ ইন্ডাস্ট্রি র নামে এই সব কিছু মানুষদের নাম করে ব্যাবসা চলছে। যদিও বা। অরিজিনাল প্রোফাইল নয়, তাও বললাম । লিংক দিলাম https://www.facebook.com/profile.php?id=100066251452382"। তবে এখানেই শেষ নয়। পায়েল এর পর পুলিশে (police) ওই ব্যক্তির ভুয়ো আইডির (facebook)  নামে অভিযোগ করেন। গোটা বিষয় এবার সাইবার ক্রাইমের হাতে তুলে দেন অভিনেত্রী। পায়েলের এই কাজকে সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু মানুষ প্রশংসা করেছেন। অনেকেই তাঁর সাহস আছে, এ কথাও বলেছেন। তবে এ ধরণের ভুয়ো অ্যাকাউন্ট ফেসবুকে ভরে রয়েছে। যেখান থেকে নানাভাবে মেয়েদের ফাঁসানোর চেষ্টা চলে।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: