বাড়িতে দমবন্ধ অবস্থা! মহামারী মিটলেই মেয়ে-বউকে নিয়ে কোথায় যাবেন, জানালেন অভিষেক বচ্চন

লকডাউন পর্ব মিটলেই বেরিয়ে পড়তে চান। কোথায় যাবেন বচ্চন দম্পতি!

লকডাউন পর্ব মিটলেই বেরিয়ে পড়তে চান। কোথায় যাবেন বচ্চন দম্পতি!

  • Share this:

#মুম্বই: করোনা মহামারীর জেরে গত বছরের শুরু থেকেই গৃহবন্দি দশা কাটাচ্ছেন দেশবাসী। এই ভাইরাসের মারণ কামড় থেকে রক্ষা পাননি বলিপাড়ার তারকারও। করোনার প্রথম ঢেউয়ে আক্রন্ত হয়েছিলেন বহু বলিউড তারকা। বর্তমানে দেশজুড়ে চলছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। এই ভাইরাসের সংক্রমণে স্তব্ধ করেছে গোটা দেশের গতি। বাড়ি থেকে বেরনো হয়ে পড়েছে দায়। কিন্তু এইভাবে আর কতদিন ঘরবন্দি হয়ে থাকা যায়? কাজ বন্ধ করে ঘরে বসে থাকতে থাকতে নিজেদের জীবনের গতিই একপ্রকার হারিয়ে ফেলছেন তারকারা। কখন এই ভাইরাসের সংক্রমণ শেষ হবে সেই আশায় দিন গুনছেন আপামোর দেশবাসী সহ তারকারাও। এই তারকাদের মধ্যে রয়েছে অভিনেতা অভিষেক বচ্চনের (Abhishek Bachchan) নামও। সংক্রমণ কাটার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন তিনি।

একটি নতুন লাইভ সেশনে তিনি বলেন যে, সবকিছু যখন আবার স্বাভাবিক হয়ে যাবে, আগের অবস্থায় ফিরে আসবে তখন তিনি পরিবারের সঙ্গে বাইরে কিছুটা সময় কাটাতে চান।

চেন্নাই এফসি (Chennaiyin FC)-এর সঙ্গে আয়োজিত এক আড্ডায় উপস্থিত হন অভিষেক বচ্চন, সেখানে অভিনেতা জানান স্ত্রী ঐশ্বর্য রায় বচ্চন (Aishwarya Rai Bachchan) এবং কন্যা আরাধ্যাকে (Aaradhya Bachchan) নিয়ে মহামারী পরবর্তীকালে তিনি ঠিক কী পরিকল্পনা করেছেন।

পিট স্টপ উইথ ব্যাড রোড বাড্ডিস (Pit Stop with Bad Road Buddies)-এর সঙ্গে কথপোকথনের সময় অভিষেক বলেন, "আমরা সবসময় লং ড্রাইভ পছন্দ করি এবং আমি আশা করি পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলে আমরা তা করতে সক্ষম হব। আমি আমার মেয়ে এবং স্ত্রীকে একটি লং রোড ট্রিপে নিয়ে যেতে চাই।”

গত বছর একসঙ্গে করোনা আক্রান্ত হন বচ্চন পরিবারের চার সদস্য তথা, অভিষেক বচ্চন, ঐশ্বর্য রায় বচ্চন, আরাধ্যা এমনকি অমিতাভ বচ্চনও (Amitabh Bachchan)। সংক্রমণের হার কম থাকায় এক সপ্তাহের মধ্যে আরাধ্যা ও ঐশ্বর্যাকে হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হলেও সংক্রমণ জোরদায় হওয়ায় প্রায় ১ মাস নানাবতী হাসপাতালে (Nanavati Hospital) ভর্তি ছিলেন বাবা আমিতাভ বচ্চন এবং অভিষেক।

প্রসঙ্গত, মোটিভেশনাল স্পিকার আনন্দ চুলানীর সঙ্গে একটি Instagram লাইভ আড্ডায় করোনা সংক্রমণের সময় হাসপাতালে বাবা অমিতাভের সঙ্গে সময় কাটানোর কথা জানিয়েছিলেন অভিষেক। তিনি বলেন, "প্রথমে আমি এবং আমার বাবা একসঙ্গে হাসপাতালে ছিলাম। এক সপ্তাহ পরে আমার স্ত্রী এবং মেয়ে করোনা আক্রান্ত হওয়ায়, তাঁদেরও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে আমি খুশি যে তাঁদের মাত্র এক সপ্তাহেই সেখানে থাকতে হয়েছিল। অন্যদিকে আমার এবং বাবার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ না আসার কারণে আমাদের বেশ কিছুদিন হাসপাতালেই থাকতে হয়।”

First published: