Indian Army Recruitment 2021: SSC আজ বেলা ৩টের পর আর আবেদন করা যাবে না, জেনে নিন বিশদে!

indian army job

শর্ট সার্ভিস কমিশন (Short Service Commission) এক্ষেত্রে পুরুষ এবং মহিলা উভয় প্রার্থীকেই ১৪ বছরের জন্য নিযুক্তি প্রস্তাব দিচ্ছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: জজ অ্যাডভোকেট জেনারেল ব্রাঞ্চ (Judge Advocate General Branch) পদের জন্য ইচ্ছুক ব্যক্তিদের আবেদনের অনুরোধ জানিয়েছিল ইন্ডিয়ান আর্মি (Indian Army)। জানা গিয়েছে যে এক্ষেত্রে ৮টি শূন্যপদ রয়েছে। এর মধ্যে ৬টি নির্দিষ্ট করা হয়েছে পুরুষ প্রার্থীর জন্য, ২টি সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে মহিলা প্রার্থীর জন্য। ল' গ্র্যাজুয়েট যে কোনও ব্যক্তি নির্দিষ্ট শর্তসাপেক্ষে এই পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন ইন্ডিয়ান আর্মির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট joinindianarmy.nic.in মারফত। তবে এই আবেদন আজ বেলা ৩টের পর আর গ্রাহ্য হবে না।

শর্ট সার্ভিস কমিশন (Short Service Commission) এক্ষেত্রে পুরুষ এবং মহিলা উভয় প্রার্থীকেই ১৪ বছরের জন্য নিযুক্তি প্রস্তাব দিচ্ছে। এর মধ্যে ১০ বছর হল চাকরির মেয়াদ, এর পর যোগ্যতার ভিত্তিতে আরও ৪ বছর তা বাড়ানো হতে পারে। এক্ষেত্রে উপযুক্ত ব্যক্তিকে তাঁর চাকরির দশম বছরে পার্মানেন্ট কমিশন (Permanent Commission) এক্সটেনশনের বিষয়ে জানাবে।

আবেদন করার যোগ্যতা: ১. বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার (Bar Council of India) অধীনে থাকা সুপ্রতিষ্ঠিত কোনও ল' কলেজ থেকে ৫৫ শতাংশ নম্বর যুক্ত LLB ডিগ্রি থাকা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে স্নাতক ডিগ্রির পরে তিন বছরের পেশাদারি অভিজ্ঞতা বা ১০+২ পরীক্ষার পর পাঁচ বছরের পেশাদারি অভিজ্ঞতা থাকাও প্রয়োজন। ২. প্রার্থীদের বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার অধীনে রেজিস্ট্রেশনের উপযুক্ত হতে হবে। ৩. প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ২১ বছর থেকে ২৭ বছরের মধ্যে।

অনলাইনে কী ভাবে আবেদন করতে হবে: ১. সবার প্রথমে যেতে হবে ইন্ডিয়ান আর্মির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.joinindianarmy.nic.in-এ। ২. হোমপেইজের ‘Officer Entry Apply/Login’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। ৩. ‘Registration’ লিঙ্কে ক্লিক করে ফর্ম ফিল আপ করতে হবে। ৪. পরের ধাপে ফর্ম ফিল আপ করে ড্যাশবোর্ডের মধ্যে থাকা ‘Apply Online’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। ৫. ‘Officers Selection - ‘Eligibility’ নামে এক নতুন পেইজ খুলে যাবে, সেখান থেকে ‘Apply’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। ৬. ‘Application Form’ নামে এক নতুন পেইজ খুলে যাবে, সেখান থেকে ‘Continue’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। ৭. সব তথ্য ভালো করে মিলিয়ে নিয়ে ‘Submit’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। ৮. ফর্ম সেভ করে ডাউনলোড করতে হবে এবং ভবিষ্যতের প্রয়োজনে একটা প্রিন্ট আউট নিয়ে রাখা উচিত হবে।

প্রার্থী বাছাই করার পদ্ধতি: দু'টি পর্যায় জুড়ে প্রার্থী বাছাই করা হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মেডিক্যাল একজামিনেশন হবে। সেখানে শারীরিক সুস্থতার মাপকাঠিতে উত্তীর্ণ হলে ট্রেনিংয়ের জন্য জয়েনিং লেটার দেওয়া হবে।

ট্রেনিংয়ের মেয়াদ এবং বেতন প্রার্থীদের ৬ মাসের প্রবেশন পিরিয়ডে থাকতে হবে। পদ অনুসারে প্রতি মাসে বেতন হবে ৫৬,১০০ টাকা থেকে শুরু করে ২,১৮,২০০ টাকা পর্যন্ত।

Published by:Pooja Basu
First published: