CBSE-র দশম শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল! পরীক্ষা না দিয়েও কীভাবে পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হবে পড়ুয়ারা, জানুন

CBSE-র দশম শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল! পরীক্ষা না দিয়েও কীভাবে পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হবে পড়ুয়ারা, জানুন

প্রতি বছর এই পরীক্ষা দেয় ২১.৫ লক্ষ পড়ুয়া। কিন্তু এই বছর কোনও বোর্ড পরীক্ষায় তাদের বসতে হবে না।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বাতিল হয়েছে CBSE-র দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা। ৪ মে থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল পরীক্ষা। কিন্তু করোনার জন্য পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু এর জন্য আটকাবে না পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হওয়ার পদ্ধতি। প্রতি বছর এই পরীক্ষা দেয় ২১.৫ লক্ষ পড়ুয়া। কিন্তু এই বছর কোনও বোর্ড পরীক্ষায় তাদের বসতে হবে না। কিন্তু বিশেষ কয়েকটি বিষয় দেখে সেই ভিত্তিতেই তাদের নম্বর দিয়ে পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে।

    তবে ঠিক কোন কোন বিষয়ের নিরিখে একজন পড়ুয়ার গুণমান বিচার করা হবে, তা এখনও স্পষ্ট প্রকাশ করেনি বোর্ড। তবে সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানিয়েছেন ইন্টারনাস অ্যাসেসমেন্ট বা অভ্যন্তরীন মূল্যায়ণের ভিত্তিতে দশম শ্রেণির পড়ুয়াদের পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে। গত বছরও একই পদ্ধতি নেওয়া হয়েছিল করোনার কারণেই।

    মহামারীর কারণেই সমস্ত বোর্ড পরীক্ষা ২০২০ সালে স্থগিত অথবা বাতিল করা হয়েছিল। যে পড়ুয়ারা তিনটি বিষয়ের পরীক্ষা দিয়েছিল তাদের সর্বোচ্চ প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে গড়ে নম্বর দেওয়া হয়েছিল। আবার যারা দুটি বিষয়ের পরীক্ষা দিয়েছিল তাদের মোট প্রাপ্ত নম্বরের গড় হিসেবে বাকি বিষয়ে নম্বর দেওয়া হয়েছিল। এছাড়া যারা দুটির কম বিষয়ে পরীক্ষা দিয়েছিল তাদের অভ্যন্তরীন মূল্যায়ণ ও প্র্যাক্টিকাল পরীক্ষার নম্বরের উপরেও নির্ভর করা হয়েছিল। সেই একই পদ্ধতি এবারও অনুসরণ করা হতে পারে বলেই অনুমান।

    তবে যে নম্বর দেওয়া হবে তাতে যদি কোনও পরীক্ষার্থী সন্তুষ্ট না হয়, তাকে আবার পরীক্ষায় বসার সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী। অন্যদিকে CBSE-র দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে কোভিডের কারণেই। ফের কবে এই পরীক্ষা হবে সেই বিষয়েও আগামী জুন মাসে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: