হোম /খবর /দেশ /
ভরা বাজারে গুনে গুনে ২৫ কোপে ছিন্নভিন্ন স্ত্রীর শরীর, হাড়হিম করা CCTV ফুটেজ...

Viral Video: ভরা বাজারের মধ্যে গুনে গুনে ২৫ কোপে ছিন্নভিন্ন স্ত্রীর শরীর, হাড়হিম করা CCTV ফুটেজ দেখুন...

ভরা বাজারে গুনে গুনে ২৫ কোপে ছিন্নভিন্ন স্ত্রীর দেহ। সংগৃহীত ছবি।

ভরা বাজারে গুনে গুনে ২৫ কোপে ছিন্নভিন্ন স্ত্রীর দেহ। সংগৃহীত ছবি।

স্ত্রীকে ২৫ বার ছুরি দিয়ে আঘাত (Stabbed to death) করেন অভিযুক্ত। যার জেরে মহিলার শরীর একেবারে ফালা ফালা হয়ে গিয়েছিল।

  • Last Updated :
  • Share this:
#নয়াদিল্লিঃ বাজারে তখন কেনাকাটার ভিড়। যে যার মতো বাজার করতে ব্যস্ত, দম ফেলার ফুরসত পর্যন্ত নেই। এমন সময় আচমকা চিৎকারে তাল কাটল। তারপর যে দৃশ্য চোখের সামনে দেখলেন সকলে, তা ভাষায় বর্ণনা করা একপ্রকার অসম্ভব। আর ভিডিও দেখলে স্থির হয়ে বসে থাকতে পারবেন না। দুর্বল হৃদয়ের কারও এ দৃশ্য না দেখাই ভাল। ইতিমধ্যেই সেই ভিডিও ভাইরাল (Viral Video) হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।
পেশায় দিল্লির (Delhi) সরকারি হাসপাতালের কর্মরতা নীলুর সঙ্গে বিয়ে হয় আদতে গুজরাতের রাজকোটের বাসিন্দা (বর্তমানে উত্তর-পশ্চিম দিল্লির বুদ্ধ বিহারের বাসিন্দা) হরিশ মেহেতার (৪০)। জানা গিয়েছে, বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীকে চাকরি ছেড়ে দেওয়ার জন্য চাপ দিতে শুরু করেন বিবাহসম্পর্কিত কাজে যুক্ত থাকা হরিশ। কিন্তু কোনওমতেই চাকরি ছাড়তে রাজি ছিলেন না নীলু। আর তাতেই কারও সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে স্ত্রী, এমন একটি বিষয় নিয়ে দু'জনের মধ্যে অশান্তির সূত্রপাত।
এ দিকে, স্বামীর সঙ্গে ধীরে ধীরে সমস্যা বাড়তে থাকায় বাপের বাড়ি চলে যান নীলু। তাতেই রাগে অন্ধ হয়ে স্ত্রীকে খুনের ছক কষে হরিশ। যেমন ভাবা তেমনি কাজ। এ দিন অফিস থেকে ফেরার পথে বউকে ডেকে পাঠায় সে। তারপর প্রকাশ্য দিবালোকে তাঁকে কুপিয়ে ফালা ফালা করে দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, স্ত্রীকে ২৫ বার ছুরি  দিয়ে আঘাত করে অভিযুক্ত। যার জেরে মহিলার শরীর একেবারে ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছিল। ইতিমধ্যেই ঘটনার হাড়হিম করা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সামনে এসেছে।
দিল্লি পুলিশের প্রকাশ করা ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, শনিবার বিকেলে ভরা বাজারের মধ্যে স্ত্রী নীলুকে রাস্তায় ফেলে একের পর এক কোপ বসাচ্ছে হরিশ। রক্তাক্ত শরীরে নীলু প্রথমে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলেও, ধীরে ধীরে লুটিয়ে পড়েন রাস্তায়। তখন অবশ্য ক্রোধে অন্ধ হয়ে স্ত্রীকে কুপিয়ে চলেছেন হরিশ। এমন সময় রাস্তা দিয়ে যারা যাচ্ছিলেন তাঁরা অনেকেই হরিশকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করতে এগিয়ে যান। কেউ যাতে এগিয়ে না আসেন স্ত্রীকে বাঁচাতে, তাই হুমকি দেন, 'কেউ বাঁচাতে এলে দেখে নেব' বলেও। এরপর নীলু মারা গিয়েছে বুঝতে পারলে, রক্তমাখা ছুরি নিয়েই পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে অভিযুক্ত। যদিও তাতে সফল হয়নি সে। এলাকা থেকেই তাঁকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা পুলিশ। এ দিকে, গুরুতর আহত ওই মহিলাকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, চিকিৎসকরা মৃত ঘোষনা করেন।
পুলিশ জানিয়েছে, নীলুর শরীরের ২৫ জায়গায় ছুরির কোপের নমুনা মিলেছে। দেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠান হয়েছে। হরিশকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করেছে পুলিশ। কী এমন ঘটনার জন্য এমন নৃশংস কাজ করল হরিশ, তা জানতে জিজ্ঞাসাবাদ হরিশকে জেরা করা হচ্ছে।
Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Delhi crime, Stabbing, Viral Video