১৩ বছরের ছেলেকে যৌন হেনস্থা দুই নাবালকের, মুখ বন্ধ রাখতে ২০ টাকার টোপ!

১৩ বছরের ছেলেকে যৌন হেনস্থা দুই নাবালকের, মুখ বন্ধ রাখতে ২০ টাকার টোপ!

প্রতীকী ছবি

উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে দুই নাবালকের বিরুদ্ধে আরেক ১৩ বছরের নাবালককে যৌন হেনস্থার অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার আলিগড়ের লোধা এলাকায়।

  • Share this:

    #আলিগড়: উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে দুই নাবালকের বিরুদ্ধে আরেক ১৩ বছরের নাবালককে যৌন হেনস্থার অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার আলিগড়ের লোধা এলাকায়। পুলিশ সূত্রে খবর, ১৩ বছরের ওই ছেলেটির বাবা একজন কৃষক। তিনি স্থানীয় একটি বাজারে ছেলেকে পাঠিয়েছিলেন চাষের কিছু সরঞ্জাম কিনে আনার জন্য। তার সঙ্গেই বাকি দুই প্রতিবেশি ছেলেও গিয়েছিল বাজারে। অভিযোগ, যাওয়ার পথে জঙ্গলের রাস্তায় নিয়ে গিয়ে ছেলেটিকে যৌন হেনস্থা করে বাকি দুইজন। এমনকী তার হাতে ছেলে দুটি ২০ টাকা দিয়ে বলে, মুখ বন্ধ রাখার জন্য।

    বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার আগে গোটা রাস্তা তাকে হুমকি দিতে থাকে ওই দুই নাবালক। বললেই তাকে মারধর করা হবে বলে ভয় দেখায়। ১৩ বছরের ছেলে বাড়িতে পৌঁছেই নিজের মাকে সমস্ত ঘটনার কথা জানায়। যৌন হেনস্থা সম্পর্কে বাবা-মাকে সব কথা বলে সে। ছেলেটির বাবার দাবি, 'আমার স্ত্রী যখন ওই দুই নাবালকের বাড়িতে গিয়ে নিজের অভিযোগ জানায়, তাঁকা ওঁর কথা শুনতেও চাননি।'

    এর পরই পুলিশকে অভিযোগ জানানোর সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৭৭ ধারায় জুভেনাইল আদালতে বিকৃত যৌনতার দায়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। যেহেতু ছেলেটি নাবালক তাই পকসো আইনেও মামলা দায়ের হয়েছে। শুক্রবার ছেলেটির বাবা হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে তার শারীরিক পরীক্ষা করান।

    অন্যদিকে, ইতাহ জেলায় ২৫ বছরের মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তি ৬ বছরের এক মেয়েকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ। পুলিশ এই অভিযোগের কথা জানতে পেরে মেয়েটির শারীরিক পরীক্ষা করানোর নির্দেশ দিয়েছে। মেডিক্যাল রিপোর্টের ভিত্তিতেই মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: