হোম /খবর /মুর্শিদাবাদ /
মুর্শিদাবাদে শ্য়ুটআউট! পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচনের পরই তৃণমূল নেতাকে গুলি, মৃত্য়ু

Murshidabad Shootout: মুর্শিদাবাদে শ্য়ুটআউট! পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচনের পরই তৃণমূল নেতাকে গুলি, মৃত্য়ু

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতা আলতাফ হোসেন। আজ সকালে মৃত্য়ু হয় তাঁর।

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতা আলতাফ হোসেন। আজ সকালে মৃত্য়ু হয় তাঁর।

  • Share this:

বহরমপুর: অনাস্থা ভোটে গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের নির্বাচনের পর পরই মুর্শিদাবাদে তৃণমূল নেতাকে লক্ষ্য় করে গুলি। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্য়ু হল তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানের। নিহত নেতার নাম আলতাফ হোসেন। গতকাল রাতে মুর্শিদাবাদের লালবাগে ওই তৃণমূল নেতাকে লক্ষ্য় করে গুলি করা হয়। এ দিন সকালে মুর্শিদাবাদ মেডিক্য়াল কলেজে মৃ্ত্য়ু হয় ওই তৃণমূল নেতার।

এই ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এই শ্য়ুটআউটের ঘটনা কি না, ফের সেই প্রশ্ন উঠছে। নিহত তৃণমূল নেতা মুর্শিদাবাদের ইসলামপুরের গোপীনাথপুর নওদাপাড়া এমএসকে স্কুলে শিক্ষকতাও করতেন।

আরও পড়ুন: মোদির বারাণসী থেকে নবাবের মুর্শিদাবাদে গঙ্গাবিলাস! বিশাল জাহাজ দেখতে স্থানীয়দের ভিড়

জানা গিয়েছে, আলতাফ হোসেন ২০০৮ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত লোচনপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছিল। তার পরেই ২০১৫ সালে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন তিনি। সম্প্রতি ওই লোচনপুর পঞ্চায়েতে তৃণমূলের একাংশই প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে। মঙ্গলবার ভোটাভুটিতে আলতাফ হোসেন ঘনিষ্ঠ সোনালি বিবি নতুন প্রধান নির্বাচিত হন।

প্রধান নির্বাচনের পর মঙ্গলবার রাতে একাই বাইক চালিয়ে লালবাগে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন ওই তৃণমূল নেতা। অভিযোগ, তখনই লালবাগ থানা এলাকার আদিম ছাড়া গ্রামের মেন রোডে আলতাফ হোসেনকে লক্ষ্য় করে গুলি চালানো হয়।

আরও পড়ুন: ক্ষতবিক্ষত দেহ, ভাসছে রক্ত! ভয়ানক কাণ্ড কান্দিতে

গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর প্রথমে আহত তৃণমূল নেতাকে লালবাগ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকেই তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্য়াল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। রাতেই অস্ত্রোপচার করে তৃণমূল নেতার শরীর থেকে গুলি বের করেন চিকিৎসকরা। কিন্তু তার পর থেকেই আলতাফ হোসেনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। আইসিইউ-তে রাখা হয় তাঁকে। এ দিন সকাল ৬.৪৫ মিনিট নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্য়াগ করেন আলতাফ হোসেন।

গুরুতর আহত হওয়ায় মৃত্য়ুর আগে আলতাফ হোসেনের সঙ্গেও কথা বলতে পারেনি পুলিশ। ফলে প্রধান নির্বাচন ঘিরে দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নাকি অন্য় কোনও কারণে তৃণমূল নেতাকে খুন হতে হল, তা নিয়ে অন্ধকারে পুলিশও। দোষীদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Crime News, Murshidabad, TMC