Home /News /crime /
এনকাউন্টারের ঠিক আগে কেন আটকানো হল সংবাদমাধ্যমের গাড়ি, প্রশ্নের মুখে পুলিশ

এনকাউন্টারের ঠিক আগে কেন আটকানো হল সংবাদমাধ্যমের গাড়ি, প্রশ্নের মুখে পুলিশ

এসটিএফ অবশ্য প্রেস বিবৃতিতে দাবি করেছে, কানপুরের সচেন্ডি থানা এলাকায় আচমকা পুলিশের গাড়ির সামনে গরু মোষের পাল চলে আসে৷ দীর্ঘ যাত্রায় ক্লান্ত গাড়ির চালক গরু, মোষগুলিকে বাঁচাতে দ্রুত গাড়িটি পাশ কাটিয়ে বেরোতে যান৷ তখনই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি উল্টে যায়৷

এসটিএফ অবশ্য প্রেস বিবৃতিতে দাবি করেছে, কানপুরের সচেন্ডি থানা এলাকায় আচমকা পুলিশের গাড়ির সামনে গরু মোষের পাল চলে আসে৷ দীর্ঘ যাত্রায় ক্লান্ত গাড়ির চালক গরু, মোষগুলিকে বাঁচাতে দ্রুত গাড়িটি পাশ কাটিয়ে বেরোতে যান৷ তখনই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি উল্টে যায়৷

শুধু সংবাদমাধ্যমকে আটকানোই নয়, এনকাউন্টারের ঘটনায় আরও একাধিক প্রশ্ন উঠছে৷

  • Share this:

    #কানপুর: গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের এনকাউন্টার নিয়ে একাধিক প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে উত্তর প্রদেশ পুলিশকে৷ কানপুরের ডনের সঙ্গে পুলিশের এনকাউন্টারের কিছুক্ষণ আগেই কেন সংবাদমাধ্যমকেও পুলিশের কনভয়কে ধাওয়া করা থেকে আটকানো হল, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷

    বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়ন থেকে গ্রেফতার করা হয় বিকাশ দুবেকে৷ রাতেই সড়কপথে বিকাশ দুবেকে নিয়ে কানপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় পুলিশ৷ কড়া নিরাপত্তার মধ্যে নিয়ে আসা হচ্ছিল বিকাশকে৷ পুলিশের কনভয়ে ছিল বেশ কয়েকটি গাড়ি৷ বিকাশ দুবেকে নিয়ে পুলিশ ফেরায় ওই কনভয়ের পিছু নিয়েছিল কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের গাড়িও৷

    অভিযোগ, ভোর সাড়ে ৬টা নাগাদ কানপুরের সাচেন্ডি এলাকায় হঠাৎই সংবাদমাধ্যমের গাড়ি আটকে দেয় পুলিশ৷ ফলে তারা আর বিকাশ দুবেকে নিয়ে যাওয়া কনভয়ের পিছু নিতে পারেনি৷ এর কিছুক্ষণের মধ্যেই এনকাউন্টারের ঘটনা ঘটে৷ ঝাঁসিতেও সংবাদমাধ্যমের গাড়ি পুলিশ আটকে দেয় বলে খবর৷ এনকাউন্টারের ঠিক আগে কেন এভাবে সংবাদমাধ্যমের গাড়ি পুলিশ আটকাল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷ ইতিমধ্যেই এনকাউন্টারের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন বিরোধীরা৷ ফলে ঘটনার সাক্ষী না রাখতেই সংবাদমাধ্যমকে আটকানো হয় বলে অভিযোগ উঠছে৷

    পুলিশ দাবি করে, যে গাড়িতে বিকাশকে নিয়ে আসা হচ্ছিল সেটি আচমকা উল্টে যায়৷ সেই সময় পুলিশের বন্দুক ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে বিকাশ দুবে৷ তাঁকে আত্মসমর্পণ করতে বলে পুলিশ৷ তা না করে বিকাশ পাল্টা গুলি চালাতে শুরু করে বলে অভিযোগ৷ তখনই আত্মরক্ষার স্বার্থেই গুলি চালাতে বাধ্য হয় পুলিশ৷ গুলির লড়াইতে গুরুতর আহত হয় বিকাশ৷ পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত্যু হয় বিকাশ দুবের৷

    শুধু সংবাদমাধ্যমকে আটকানোই নয়, এনকাউন্টারের ঘটনায় আরও একাধিক প্রশ্ন উঠছে৷ যেমন বিকাশ দুবে যখন উল্টে যাওয়া গাড়িতে থাকা পুলিশকর্মীদের কাবু করে বেরিয়ে গেল, তখন কনভয়ে থাকা অন্যান্য গাড়ির পুলিশকর্মীরা তাকে বাধা দিলেন না কেন, সেই প্রশ্ন উঠছে৷ পালানোর চেষ্টা করে থাকলে বিকাশ দুবের বুকে কীভাবে গুলি লাগল, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷ পুলিশের অবশ্য দাবি, আত্মসমর্পণ না করে তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় বিকাশ৷ তারই জবাব দেয় পুলিশ৷

    এন সি আস্থানা নামে প্রাক্তন এক আইপিএস অফিসারও দাবি করেছেন, পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি এবং ঘটনাস্থলের ছবি দেখে পরিষ্কার, গোটা ঘটনাই সাজানো৷ ঘটনার পর পুলিশের গাড়িটি যেভাবে উল্টে পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন ওই প্রাক্তন পুলিশকর্তা৷ পাশাপাশি চতুর্দিকে খোলা মাঠ থাকা সত্ত্বেও অত পুলিশকর্মীর মধ্যে বিকাশ দুবে কেন পালানোর ঝুঁকি নেবে, সেই প্রশ্নও তুলেছেন অবসরপ্রাপ্ত ওই আইপিএস অফিসার৷ কারণ সেক্ষেত্রে সহজেই পুলিশ যে তাকে ঘায়েল করতে পারবে, বিকাশের মতো একজন দুঁদে অপরাধীর তা সহজেই বোঝার কথা৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Vikas Dubey, Vikas Dubey Encounter

    পরবর্তী খবর