• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • Alapan Bandopadhyay Threat Letter: আলাপনকে হুমকি চিঠি পাঠিয়েছিলেন চিকিৎসক! ধৃত আরও দুই, তদন্তে নেমে তাজ্জব পুলিশ

Alapan Bandopadhyay Threat Letter: আলাপনকে হুমকি চিঠি পাঠিয়েছিলেন চিকিৎসক! ধৃত আরও দুই, তদন্তে নেমে তাজ্জব পুলিশ

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷

কয়েকদিন আগেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তাঁর স্ত্রী সোনালি চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি চিঠি পাঠানো হয় (Alapan Bandopadhyay Threat Letter)৷

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিব এবং মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি চিঠি পাঠানোর অভিযোগে এক চিকিৎসক সহ তিনজনকে গ্রেফতার করল পুলিশ (Alapan Bandopadhyay Threat Letter)৷ ধৃত চিকিৎসকের নাম অনুপম সেন৷ তিনি যাদবপুরের কেপিসি মেডিক্যাল কলেজের সঙ্গে যুক্ত৷ এর পাশাপাশি ওই চিকিৎসকের গাড়ির চালক রমেশ সাউ এবং বিজয়কুমার কয়ালকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

কয়েকদিন আগেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তাঁর স্ত্রী সোনালি চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি চিঠি পাঠানো হয়৷ গত ২৬ অক্টোবর রাতে এই মর্মে আহমার্স্ট স্ট্রিট থানায় এই মর্মে অভিযোগ দায়ের হয়৷ চিঠিটি পাঠানো হয়েছিল গৌরহরি মিশ্রের নামে৷ ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, চিঠিটি পাঠানো হয়েছিল শরৎ বোস রোডের একটি পোস্ট অফিস থেকে৷ সেই পোস্ট অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করে পুলিশ জানতে পারে, এই চিঠি পাঠানোর নেপথ্যে রয়েছেন অরিন্দম সেন নামে এক চিকিৎসক৷ যদিও তদন্ত করতে গিয়ে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে তদন্তকারীদের হাতে৷

আরও পড়ুন: কলকাতা থেকে দিল্লিতে কেন সিএটি মামলা? হাইকোর্টে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়

পুলিশ জানতে পারে, একা আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় নয়, গত ২৫ অক্টোবর শরৎ বোস রোডের ওই পোস্ট অফিস থেকে একসঙ্গে সাতজনকে হুমকি চিঠি পাঠিয়েছিলেন ধৃত চিকিৎসক৷ যাঁদের হুমকি চিঠি পাঠানো হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন এনআরএস হাসপাতাল এবং মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল, ডিরেক্টর মেডিক্যাল এডুকেশনের মতো পদাধিকারীরাও৷

পুলিশ জানতে পেরেছে, অনুপম সেন নামে ওই চিকিৎসকের নির্দেশে তাঁর গাড়ির চালক টাইপিস্ট বিজয়কুমার কয়ালকে দিয়ে চিঠি লেখাতেন৷ তার পর সেই চিঠি পোস্ট করা হত৷ গত দু' বছর ধরে ওই চিকিৎসক এভাবেই বেনামে বহু মানুষকে হুমকি চিঠি পাঠিয়েছেন বলে জানতে পেরেছেন তদন্তকারীরা৷ যাঁদের চিঠি পাঠানো হত, তাঁরা প্রত্যেকেই নিজ নিজ ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত বলেও তদন্তে উঠে এসেছে৷

ধৃত চিকিৎসককে প্রাথমিক জেরা করে পুলিশের অনুমান, মানসিক সমস্যা থেকেই এমন হুমকি চিঠি পাঠাতেন তিনি৷ এতদিন বিষয়টি নিয়ে হইচই না হলেও আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি পাঠানোর পরই বিষয়টি প্রকাশ্যে চলে আসে৷

পুলিশ সূত্রে খবর, রাজাবাজার সায়েন্স কলেজের ল্যাব কর্মী গৌরহরি মিশ্রের নামে এই চিঠি পাঠানো হয়েছিল৷ গৌরহরি সম্ভবত অভিযুক্ত অনুপম সেনের প্রতিবেশী৷ গৌরহরি এবং তাঁর পরিবারের উপরে কোনও আক্রোশ থেকেই তাঁর নামে চিঠি পাঠানো হয়েছিল বলে অনুমান পুলিশের৷ যদিও শুধুই মানসিক সমস্যা, নাকি চিকিৎসকের এই হুমকি চিঠি পাঠানোর পিছনে অন্য কোনও অভিসন্ধিও কাজ করছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ ধৃত তিনজনকেই আজ আদালতে তুলে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে পুলিশ৷ ধৃত চিকিৎসকের মানসিক চিকিৎসার কোনও রেকর্ড রয়েছে কি না, সেই সমস্ত তথ্যও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা৷ কর্মক্ষেত্রে তাঁর সহকর্মীদের সঙ্গেও কথা বলবে পুলিশ৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: