• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • Child Rape & Murder|| ছোট্ট শিশুকে রাতভর ধর্ষণের পর খুন! চোখ খুবলে নিল পিশাচ ধর্ষক! ক্ষোভের আগুন জ্বলছে

Child Rape & Murder|| ছোট্ট শিশুকে রাতভর ধর্ষণের পর খুন! চোখ খুবলে নিল পিশাচ ধর্ষক! ক্ষোভের আগুন জ্বলছে

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Child Rape and Murder: রাতভর ধর্ষণের পরে খুন ( raped and murdered) করেও মেলেনি সুখ, শেষে আট বছরের শিশুর ডান দিকের চোখটি খুবলে (right eye gouged out) বার করে নেয় ধর্ষক। ভেঙে দেয় একরত্তির হাতের আঙুল (fingers crushed)।

  • Share this:

    #মুঙ্গের: রাতভর র্ষণের পরে খুন ( raped and murdered) করেও মেলেনি সুখ, শেষে আট বছরের শিশুর ডান দিকের চোখটি খুবলে (right eye gouged out) বার করে নেয় ধর্ষক। ভেঙে দেয় একরত্তির হাতের আঙুল (fingers crushed)। বুধবার রাতে চরমতম জঘন্য ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের মুঙ্গেরের (Bihar’s Munger district) পূরবী টোলা গ্রামে (Purvi Tola village।) বৃহস্পতিবার যখন শিশুটির দেহ উদ্ধার হয়, তখন রক্তে ভেসে যাচ্ছিল ছোট্ট শরীর। ঘটনায় ফুঁসছে গোটা গ্রাম।

    মৃত শিশুর পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন,  দ্বিতীয় শ্রেণির পড়ুয়া শিশুটি বুধবার বিকেলে বাবার (পেশায় জেলে) সঙ্গে নদীতে গিয়েছিল। বাবা যখন স্নান করতে নদীতে নামে, সে তখন পাড়ে দাঁড়িয়ে ছিল। কিন্তু স্নানের পরে উঠে বাবা আর তাকে দেখতে পাননি। বাড়ি ফিরে গিয়েছে  বা অন্য কোথাও খেলছে ভেবে তিনি বাড়ি ফিরে আসেন। কিন্তু বেশ কয়েক ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও সে বাড়ি ফিরে না আসায় পরিবারের সকলে দুশ্চিন্তায় পড়ে যান, শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। নিখোঁজের অভিযোগ জানানো হয় নিকটবর্তী সোফিয়াবাদ থানায়। এরপর বৃহস্পতিবার ভোরে নদীর দিকের একটি ইট ভাঁটায় রক্তাক্ত রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়।

    প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, যে এলাকা থেকে শিশুটির দেহ উদ্ধার হয় এ দিন সকালে সেখানেই তাকে রাতভর ধর্ষণ করে, তারপর শ্বাসরোধ (strangulation) করে খুন করা হয়। দেহ উদ্ধারের সময় সারা দেহ রক্তাক্ত ছিল। মুঙ্গেরের ডিএসপি (Deputy Superintendent of Police) নন্দজি প্রসাদ বলেন, শিশুটিকে কীভাবে মারা হয়েছে ময়না তদন্তের (post-mortem) রিপোর্ট আসার পরে সঠিকভাবে বলা সম্ভব হবে।  দেহ ইতিমধ্যেই ময়না তদন্তেপাঠান হয়েছে। তবে কে বা কা এই ঘটনা ঘটয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। ধর্ষকদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে বেজায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন গ্রামবাসীরা।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: