• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • Unlock 1: মাস্কেই ঢাকা মুখ! দোকান খুললেও ক্রেতার দেখা নেই, সমস্যায় পড়েছেন প্রসাধনী দ্রব্যের দোকানদার

Unlock 1: মাস্কেই ঢাকা মুখ! দোকান খুললেও ক্রেতার দেখা নেই, সমস্যায় পড়েছেন প্রসাধনী দ্রব্যের দোকানদার

বিশেষ করে সাজাগোজার জিনিস বা মনিহারি দোকানে ব্যবসা একেবারেই তলানিতে চলে যাওয়ায় আর্থিক মন্দার মধ্যে পড়েছে মনিহারি দ্রব্য বিক্রেতারা।

বিশেষ করে সাজাগোজার জিনিস বা মনিহারি দোকানে ব্যবসা একেবারেই তলানিতে চলে যাওয়ায় আর্থিক মন্দার মধ্যে পড়েছে মনিহারি দ্রব্য বিক্রেতারা।

বিশেষ করে সাজাগোজার জিনিস বা মনিহারি দোকানে ব্যবসা একেবারেই তলানিতে চলে যাওয়ায় আর্থিক মন্দার মধ্যে পড়েছে মনিহারি দ্রব্য বিক্রেতারা।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: আন লক চালু হবার পরে দোকান খুললেও করোনা আবহের কারনে খদ্দেরের অভাবে ব্যাবসা নেই রায়গঞ্জ শহরের অধিকাংশ  দোকানেই।করোনা আবহের কারণে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে দোকানে প্লাষ্টিক দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে সাজাগোজার জিনিস বা মনিহারি দোকানে ব্যবসা একেবারেই তলানিতে চলে যাওয়ায় আর্থিক মন্দার মধ্যে পড়েছে মনিহারি দ্রব্য বিক্রেতারা। তার উপর দোকানে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সুরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলায় দোকানের খরচও আগের চাইতে অনেকটাই বেড়েছে। ব্যাঙ্কের ঋণ শোধ করে সাংসার চালানো এখন কঠিন সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে গত তিন মাস লকডাউনের কারণে বন্ধ হয়ে পড়েছিল দোকান। Unlock 1 চালু  হওয়ার পরে দোকান খুললেও সাধারণ মানুষ কোনওভাবে নিজেদের ন্যূনতম প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী,  ওষুধপত্র ছাড়া অন্য কেনাকাটা  করতে পারছেন না ।  এই করোনা আবহে সাধারন মানুষের রোজগার বন্ধ হয়ে গিয়েছে।অনেকের আবার আয় অনেকটাই কমে গিয়েছে। ন্যূনতম খাদ্যসামগ্রী বা ওষুধপত্র ছাড়া অন্য কোনও কিছু ক্রয় ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছে সাধারণ মানুষ। প্রসাধনী দ্রব্য বা ইমিটেশনের অলঙ্কার কেনার মতো সাধ বা সাধ্য এই আবহে কারণে কারও নেই। ফলে প্রসাধনী সামগ্রী বা মনিহারি  দোকান খুললেও সেভাবে তা চলছে না।

রায়গঞ্জ শহরের নিশীথ সরনীর মনিহারি দ্রব্য বিক্রেতা সুনন্দ শেখর দাস জানালেন, লকডাউনের পরে রীতিমতো স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে দোকানে প্লাস্টিক দিয়ে ঘিরে দোকান খুললেও করোনা আবহের কারণে মানুষের ক্রয় ক্ষমতা অনেকটাই কমে যাওয়ায় এই সমস্ত পণ্যসামগ্রী বিক্রেতাদের ব্যবসা একেবারেই মার খেয়ে গিয়েছে। আগে মাসে যে পরিমাণ রোজগার হত তা কমে গিয়ে তলানিতে এসে ঠেকেছে।ফলে এখন তাদের সংসার চালানোয় কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Uttam Paul

Published by:Elina Datta
First published: