corona virus btn
corona virus btn
Loading

ঢাকা থেকে কলকাতায় ফিরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষ করার পর করোনায় আক্রান্ত হলেন দুই যাত্রী!

ঢাকা থেকে কলকাতায় ফিরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষ করার পর করোনায় আক্রান্ত হলেন দুই যাত্রী!

কোয়ারেন্টাইনে থাকার অবস্থায় কী ভাবে ওই দুই ব্যক্তি সংক্রমিত হলেন? কারাই বা ওঁদের সংস্পর্শে এসেছে, তার তালিকা তৈরির চেষ্টা হচ্ছে।

  • Share this:

SHALINI DATTA

#কলকাতা: ঢাকা ফেরত দুই যাত্রী কোয়ারেন্টাইন শেষ করার পরে কোভিডে আক্রান্ত হলেন । বন্দে ভারত মিশনে বাংলাদেশ থেকে ফেরা দু'জন যাত্রী এ বার কোভিড-19-এ আক্রান্ত হলেন। তবে বাংলাদেশ থেকে ফেরার পরে তাঁরা নিয়ম মেনেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। তারপরে তাঁদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেল। কী ভাবে ওই দু'জন পুরুষ যাত্রী সংক্রমিত হলেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই ওয়াকিবহাল মহলে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

৭ মে থেকে ১৬ মে বন্দে ভারত মিশনের প্রথম ধাপে প্রায় ১২টি দেশ থেকে ১৬,৭১৬ জনকে ফেরত নিয়ে আসা হয়। ওই ধাপে কলকাতায় কোনও উড়ান আসেনি। কিন্তু পরের ধাপে ১৮ মে প্রথম বিদেশ থেকে একটি বিমান আসে কলকাতায়। ওই উড়ানে ১৬৯ যাত্রী কলকাতায় এসেছিলেন ঢাকা থেকে। ওই ১৬৯-এর মধ্যেই অন্যতম ছিলেন ওই দু'জন যাত্রী। নিয়ম মেনে ওই সব যাত্রীকেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। সাধারণত সংক্রমিত হওয়ার ১৪ দিনের মধ্যে সংক্রমণের লক্ষণ দেখা যায়। তা যখন এ ক্ষেত্রে হয়নি, তখন ওই দুই যাত্রী বাংলাদেশ থেকে সংক্রমণ আনেননি বলে প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত স্বাস্থ্য দফতরের কর্তারা।

তবে কোথা থেকে সংক্রমণ হল, তা নিয়ে খুবই চিন্তায় রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। বিমানবন্দরের এক কর্তার কথায়, "উনি যদি ফেরার ১৪ দিনের মধ্যে সংক্রমণ হত, তা হলে আমাদের চিন্তার কিছু ছিল না। কিন্তু যে ভাবে ১৪ দিন পরে ওই দু'জনের শরীরে ভাইরাসের হামলা হয়েছে, তা নিয়ে আমরা বিস্তর চিন্তায়।" বিমানে ওই দু' জনের সঙ্গে যাঁরা এসেছেন, তাঁদের আপাতত ফের কোয়ারেন্টাইনে যেতে হচ্ছে না। ওই কর্তা বলেন, " আমরা আপাতত জানার চেষ্টা করছি যে, কোয়ারান্টিনে থাকার অবস্থায় কী ভাবে ওই দুই ব্যক্তি সংক্রমিত হলেন? কারাই বা ওঁদের সংস্পর্শে এসেছে, তার তালিকা তৈরির চেষ্টা হচ্ছে। হলে ওই সব ব্যক্তিদের প্রথমে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে।" বন্দে ভারত মিশনের প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ হওয়ার পরে এখন দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ হওয়ার পথে। আগামী ১৪ জুন থেকে তৃতীয় পর্যায়ের কাজ শুরু হবে। তার ঠিক আগে এমন একটা ঘটনা সামনে আসায় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বেশ অস্বস্তিতে।

Published by: Simli Raha
First published: June 3, 2020, 4:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर