corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘ঘরের মধ্যে প্লাস্টিকের ঘর’, এমনই অভিনব কায়দায় সামাজিক দুরত্ব রক্ষার চেষ্টা রেস্তোরাঁয়

‘ঘরের মধ্যে প্লাস্টিকের ঘর’, এমনই অভিনব কায়দায় সামাজিক দুরত্ব রক্ষার চেষ্টা রেস্তোরাঁয়

চলতি সপ্তাহের সোমবার থেকেই দরজা খুলেছে হোটেলে, হাজার নিয়ম ও বিধিনিষেধকে সঙ্গে করে হোটেলের হেঁশেলে জ্বলছে উনুন।

  • Share this:
#কলকাতা: মালিকদের মাথায় নেই আর হোটেলের ব্যবসা, এখন শুধুই ভাবনা সামাজিক দুরত্ব। চলতি সপ্তাহের সোমবার থেকেই দরজা খুলেছে হোটেলে, হাজার নিয়ম ও বিধিনিষেধকে সঙ্গে করে হোটেলের হেঁশেলে জ্বলছে উনুন। দীর্ঘদিনের লকডাউন কাটিয়ে এখন শুধুই সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে হোটেলের দরজা খোলার রাখার প্রচেষ্টাই একমাত্র। হাজারো বিধিনিষেধের মধ্যে সামাজিক দুরত্ব মেনে চলতে চারজনের বদলে একই টেবিলে জায়গা পেয়েছে দুইজন। সোমবার থেকে হোটেল খোলা হলেও অনেক ক্রেতাই কঠোরভাবে মেনে চলতে চাইছেন সামাজিক দুরত্বের বিধি। হোটেলে একটি টেবিলের চেয়ারের সংখ্যার হিসাব থেকে শুরু করে স্যানিটেশনের পদ্ধতি পর্যন্ত খুঁটিয়ে জানতে চায় হোটেলের পুরাতন কাস্টমার। বুধবার ধর্মতলার একটি হোটেলে প্লাস্টিকের আস্তরণ দিয়ে ঘেরা টেবিলের দেখা মিলল। সেই প্লাস্টিকের আস্তরণ শুধুমাত্র সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে। একটি টেবিলের সঙ্গে অন্য টেবিলের দুরত্ব থাকলেও করোনা আবহে আরও নিরাপত্তা দিতে চায় হোটেল মালিক। হোটেলের মধ্যে থাকা এগারোটি টেবিলের চারদিকে ঘেরা থাকল প্লাস্টিকের মাধ্যমে। অভিনবত্ব হলেও সুরক্ষিত বলে মনে করেন বুধবার হোটেলে আসা অধিকাংশ ক্রেতা।
হোটেল মালিক সুদেশ পোদ্দার জানান, এই আস্তরণ শুধুমাত্র সামাজিক দুরত্বের কথা মাথায় রেখে, এই ব্যবস্থা দেখে অনেক ক্রেতাই হোটেলমুখি হয়েছেন। হোটেলের দীর্ঘদিনের কাস্টমার তরুন দাস জানান, সামাজিক দুরত্বের তাগিদে একের পর এক হোটেলের খোঁজ করার পরে দেখলাম চেনা হোটেলেই ভাল ব্যবস্থা। রিমা লাহা জানান, অনেকদিন পরে হোটেলে ভাল মেনুর খোঁজ করতে এসেছিলাম, ভাল ব্যবস্থা দেখে এখানেই খেলাম। করোনার আবহে বদল এসেছে সবকিছুতেই, হোটেলের প্রবেশ থেকে প্রস্থানের পরিবর্তন হয়েছে। এবার এই অবস্থা দেখে অনেকেই রসিকতার সঙ্গে বলছেন, এতো ঘরের মধ্যে ঘর! Susobhan Bhattacharya
Published by: Elina Datta
First published: June 11, 2020, 12:56 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर