Russia Covid Help : কথা রেখেছে রাশিয়া, ভারতে এল ২০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর সমেত করোনার ওষুধ বোঝাই দুই বিমান!

কথা রেখেছে রাশিয়া Photo : File Photo

রাশিয়া (Russia) থেকে এসেছে- ৭৫টি ভেন্টিলেটর, ১৫০টি বেডসাইড মনিটর, ওষুধ, ২০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর (Emergency Medicines and equipment) ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি : বন্ধুর বিপদে ভারতের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার ছিল বন্ধু দেশ রাশিয়ার (Russia)। বৃহস্পতিবার সকালেই মস্কো থেকে দু’টি বিমান পৌঁছাল দিল্লি বিমানবন্দরে (Delhi airport)। এদেশে (india) করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তেই বিভিন্ন দেশ ভারতের পাশে বন্ধুর মত এসে দাঁড়িয়েছে। রাশিয়া থেকে প্রয়োজনীয় নানা রকম করোনা যুদ্ধের সামগ্রী এসে পৌঁছাল ভারতে।

    এদিন একাধিক অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, লাঙ্গ ভেন্টিলেটর, মনিটর, ওষুধ, করোনার আর অন্যান্য দরকারি ফার্মাসিউটিক্যাল উপকরণ নিয়ে ভারতে পৌঁছাল দু'টি রাশিয়ান বিমান ৷ রাশিয়া থেকে এসেছে- ৭৫টি ভেন্টিলেটর, ১৫০টি বেডসাইড মনিটর, ওষুধ, ২০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর। ভারতে রাশিয়ার অ্যাম্বাসাডর নিকোলে কুদাশেভ এই কথা জানিয়েছেন ৷

    তিনি বলেন, "ভারত ও রাশিয়ার স্ট্র্যাটেজিক পার্টনারশিপ, করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে দু'দেশের লড়াইয়ের ক্ষেত্রে রাশিয়ান ফেডারেশন ভারতকে মানবিক দিক থেকে সাহায্য পাঠাবে ভারতে ৷ এই কারণে রাশিয়ান ইএমইআরসিওএম-এর দু'টি বিমান দ্রুত ভারতে এসেছে ৷"ভারতের ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে রাশিয়া ৷ ভারত আর রাশিয়ার মধ্যে একটি চিরন্তন বন্ধুত্বের সম্পর্ক রয়েছে, জানান কুদাশেভ ৷ কোভিড-19 ভ্যাকসিন স্পুটনিক-ভি আসবে মে মাস থেকে ৷

    বুধবারই প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং প্রেসিডেন্ট পুতিনের মধ্যে ফোনে কথা হওয়ার পর মোদী জি ট্যুইটে জানিয়েছিলেন, ‘ভারতের করোনা আবহ নিয়ে প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে কথা হয়েছে। রাশিয়া আমাদের পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছে। এই সাহায্যের জন্য প্রেসিডেন্ট পুতিনকে অনেক ধন্যবাদ জানাই’।

    প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে বন্ধু দেশ আমেরিকাও। ভারতকে সাহায্য করতে সম্পূর্ণভাবে এগিয়ে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বিডেন। বিডেনের সেই কথা মতই বুধবার রাতেই আমেরিকা থেকে প্রয়োজনীয় উপাদান ভর্তি বিমান রওনা দিয়েছে ভারতের উদ্দেশ্যে। আমেরিকা থেকে আজই ভারতে আসছে প্রায় ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের করোনা মোকাবিলা সামগ্রী।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: