corona virus btn
corona virus btn
Loading

কার্ড হাতে আসেনি! লক ডাউনে রেশন মিলবে কুপনে

কার্ড হাতে আসেনি! লক ডাউনে রেশন মিলবে কুপনে
প্রতীকী চিত্র৷

আবেদন গ্রাহ্য হয়েছে, অথচ রেশন কার্ড হাতে পাননি? চিন্তার কারণ নেই।

  • Share this:

#বর্ধমান: আবেদন গ্রাহ্য হয়েছে, অথচ রেশন কার্ড হাতে পাননি? চিন্তার কারণ নেই। লক ডাউনে তাঁরা অন্যদের মতোই রেশন পাবেন। তাঁদের জন্য বিশেষ কুপন তৈরি করেছে খাদ্য দফতর। ইতিমধ্যেই গ্রামীণ এলাকায় বিডিও অফিস থেকে এবং শহর এলাকায় পুরসভার তত্ত্বাবধানে সেই কার্ড বিলিও শুরু হয়ে গিয়েছে। পূর্ব বর্ধমান জেলায় এ রকম প্রায় দু লক্ষ বাসিন্দাকে এই কুপন দেওয়া হচ্ছে। এর বাইরেও দুঃস্থ মানুষ যাঁদের রেশন কার্ড নেই, কার্ডের জন্য আবেদনও করেননি তাঁদের জন্যও বিনা মূল্যে খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। জি আরের মাধ্যমে চাল, গম সহ খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হবে তাঁদের।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় রেশন কার্ড রয়েছে অথচ নাম নথিভুক্ত না হওয়ায় রেশন না পেয়ে হন্যে হয়ে ঘুরছেন অনেকেই। কেউ কেউ দেড় বছর আগে রেশন কার্ড হাতে পেয়েছেন। অথচ সে তথ্য এখনও রেশন ডিলারের কাছে পৌঁছয় নি। তাঁদের রেশন দিতে চাইছেন না ডিলার। এই নিয়ে অশান্তি বাড়ছে। কার্ড নিয়ে খাদ্য দফতরে, প্রশাসনিক অফিসে ভিড় করছেন অনেকেই। সেসব সমস্যা মেটাতেই কুপন চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

জেলা খাদ্য দফতর থেকে জানা গিয়েছে, নতুন কার্ডের জন্য আবেদন করেছিলেন অনেকেই। তাদের আবেদন গ্রাহ্যও হয়েছে অথচ এখনও কার্ড হাতে পাননি এমন বাসিন্দারা এই লক ডাউন পরিস্থিতিতে কুপনের মাধ্যমে রেশনের খাদ্য সামগ্রী পাবেন। জেলায় মোট এক লক্ষ বিরানব্বই হাজার চারশো ছিয়ানব্বই জনকে কুপন দেওয়া হবে। জেলার তেইশটি ব্লকের জন্য সেই কুপন বিলি শুরুও হয়ে গিয়েছে।

তবে যাঁদের আবেদন এখনও গ্রাহ্য হয়নি বা বাতিল হয়েছে তাঁরা রেশন পাবেন না। অন্যদিকে, কার্ড নেই, অথচ দুঃস্থরা যাতে খাদ্য সমস্যায় না পড়েন তা দেখার জন্য জেলা প্রশাসনকে বলেছেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। তিনি বলেন, কেউ যাতে অভুক্ত না থাকেন তা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। গণবন্টন পরিষেবার বাইরে থাকা  দুঃস্থদের কাছে চাল ডাল খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া জন্য জেলা শাসককে বলেছি।  জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, জিআরের মাধ্যমে পুরসভা ও পঞ্চায়েত এলাকায় দুঃস্থদের খাদ্যসামগ্রী দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

Saradindu Ghosh

Published by: Debalina Datta
First published: April 9, 2020, 4:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर