Home /News /coronavirus-latest-news /
গরিবের জন্য ৬৫ হাজার কোটি, সুদিন ফেরার অন্য পথ দেখছেন না রঘুরাম রাজন

গরিবের জন্য ৬৫ হাজার কোটি, সুদিন ফেরার অন্য পথ দেখছেন না রঘুরাম রাজন

রাহুল গান্ধি কথা বলছেন বিশিষ্টজনের সঙ্গে। প্রথম পর্বে অতিথি রঘুরাম রাজন।

রাহুল গান্ধি কথা বলছেন বিশিষ্টজনের সঙ্গে। প্রথম পর্বে অতিথি রঘুরাম রাজন।

করোনা রুখতে একযোগে কাজ করাই উপায়, মনে করেন রাজন। রাহুল অবশ্য কিছুটা অনুযোগের সুরেই বলেন, ভারতে অসাম্যটাই বড় হয়ে দাঁড়াচ্ছে। ঘৃণার বেসাতি তৈরি হচ্ছে।

  • Share this:

    ভারতের ভাগ্যাকাশে সিঁদুরে মেঘ। আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। তাঁদের ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করার জন্যে প্রয়োজন বিপুল পরিমাণ অর্থসাহায্য। এমনটাই মনে করছেন অর্থনীতিবিদ তথা রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান রঘুরাম রাজন। বৃহস্পতিবার তাঁর সঙ্গে দেশের আর্থিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বললেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি।

    ধারাবাহিক ভাবে দেশের আর্থিক পরিস্থিতি নিয়ে বিশিষ্টজনজের সঙ্গে কথা বলার পরিকল্পনা করেছন রাহুল গান্ধি। সেই তালিকায় প্রথম নামই ছিল রঘুরাম রাজনের। গোটা সোশ্যাল মিডিয়ারও চোখ ছিল রাহুল-রাজন কথপোকথনে। এই সাক্ষাৎকার সব ধরনের সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ট্রিমও করা হয়।

    রঘুরাম রাজন এদিন স্পষ্ট বার্তা দেন লকডাউন সম্পর্কে। তিনি বলেন, ভারতের মতো দেশে অনন্তকাল লকডাউন চালিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় না। সরকারকে সংক্রমণ আটকানোর সঠিক পরিকল্পনা ভাবতে হবে।়

    করোনা রুখতে একযোগে কাজ করাই উপায়, মনে করেন রাজন। রাহুল  অবশ্য কিছুটা অনুযোগের সুরেই বলেন, ভারতে অসাম্যটাই বড় হয়ে দাঁড়াচ্ছে। ঘৃণার বেসাতি তৈরি হচ্ছে। আমাদের সমাজটাই অন্য রকম। এখানে এখনও বর্ণভেদের ভূমিকা রয়েছে।

    এই কথাবার্তা চলাকালীনই রঘুরাম রাজন বলেন, "গরীবের হাতে ৬৫ হাজার কোটি টাকা দেওয়ার বন্দোবস্ত করতে হবে। তাহলে ভারতের অ্রর্থনীতি ফের মূল স্রোতে ফিরবে।"

    রাহুলের শেষ প্রশ্ন ছিল, স্বৈরাচার বিষয়ে আপনার কী মত। রঘুরাম রাজনের সপাট জবাব, নিঃসহায় মানুষরা অনেক সময়ে আশ্বস্ত বোধ করেন স্বৈরাচারীকে দেখে। তাঁরা ভাবেন সেই নেতাই বুক চিতিয়ে বিপদের সঙ্গে লড়বে।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    Tags: Coronavirus, COVID-19, Lockdown, Raghuram Rajan, Rahul Gandhi

    পরবর্তী খবর