দেশে দ্বিগুন হচ্ছে ভেন্টিলেটরের সংখ্যা, সৌজন্যে PM CARES ফান্ড

মঙ্গলবার বেজিংয়ে ২৭ জন নয়া করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। এই নিয়ে গত ৫ দিনে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০৬। Representative image

দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করার পরই মার্চ মাসের শেষ দিকে PM CARES ফান্ড তৈরি করে কেন্দ্রীয় সরকার৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: গত ৭০ বছরে দেশে মোট ৪৭ হাজার ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়েছিল৷ তাও সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে এই সংখ্যক ভেন্টিলেটর ছিল ১৩০ কোটির জনসংখ্যার দেশে৷

    কিন্তু করোনা অতিমারি অনেক হিসেবই ওলটপালট করে দিচ্ছে৷ স্বাধীনতার পর ৭০ বছরের বেশি সময়ে যেখানে মোট ৪৭ হাজার ভেন্টিলেটরের বন্দোবস্ত করা গিয়েছিল, সেখানে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দেশে আরও ৫০ হাজার ভেন্টিলেটর কিনছে সরকার৷ সৌজন্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির PM CARES তহবিল৷

    দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করার পরই মার্চ মাসের শেষ দিকে PM CARES ফান্ড তৈরি করে কেন্দ্রীয় সরকার৷ একাধিকবার এই তহবিলের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা৷ কেন্দ্রীয় সরকার অবশ্য সম্প্রতি জানায়, পরিযায়ী শ্রমিকদের উন্নয়নের পাশাপাশি এই বিশেষ তহবিলের পাওয়া টাকা থেকে ৫০ হাজার ভেন্টিলেটর কেনা হবে৷ যার জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ২ হাজার কোটি টাকা৷ এই ভেন্টিলেটরগুলি ভারতেই তৈরি করা হবে৷

    সেন্টার ফর ডিজিজ ডাইনামিক্স, ইকোনমিক্স অ্যান্ড পলিসি (CDDEP) এবং প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির করা একটি সমীক্ষায় উঠে এসেছে, ২০ এপ্রিল, ২০২০ পর্যন্ত দেশে মোট ভেন্টিলেটরের সংখ্যা ছিল ৪৭,৪৮১৷

    এর অর্থ পিএম কেয়ার্স ফান্ড থেকে বরাদ্দ করা অর্থে আরও ৫০ হাজার ভেন্টিলেটর কিনতে পারলে দেশে মোট ভেন্টিলেটরের সংখ্যা ১ লক্ষের কাছাকাছি পৌঁছে যাবে৷ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারতের করোনা সংক্রমণ এখনও চূড়ান্ত পর্যায় পৌঁছয়নি৷ ফলে আগামী দিনে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় ভেন্টিলেটরের প্রয়োজনিয়তার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ ফলে ভেন্টিলেটরের সংখ্যা একধাক্কায় দ্বিগুন হলে দেশে করোনা চিকিৎসার পরিকাঠামোও অনেকটা শক্তিশালী হবে৷

     
    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: