corona virus btn
corona virus btn
Loading

জ্বর-সর্দি-কাশি হলে অফিস আসতে হবে না, একগুচ্ছ নির্দেশিকা সহ সরকারি কর্মীদের হাজিরা নিয়ে নয়া ফরমান

জ্বর-সর্দি-কাশি হলে অফিস আসতে হবে না, একগুচ্ছ নির্দেশিকা সহ সরকারি কর্মীদের হাজিরা নিয়ে নয়া ফরমান
নবান্ন

করোনার বেড়ে চলা হার দেখে নয়া ফরমান রাজ্য সরকারের ৷

  • Share this:
#কলকাতা: আনলক ১.০, লকডাউন শিথিল হতেই প্রায় আড়াই মাস পর সোমবার ৮ জুন থেকেই খুলে গিয়েছে  রাজ্য সরকার সহ সমস্ত বেসরকারি অফিসও ৷ অফিসে হাজিরার তাড়নায় সামাজিক দূরত্ব ভুলে ভিড় বাসেই আসছেন অফিস যাত্রীরা ৷ এতে সংক্রমণের হার আরও বেড়ে যাবে ভেবে উদ্বেগে বিশেষজ্ঞরা ৷ সবদিক বিবেচনা করে একদিন যেতে না যেতেই করোনার বেড়ে চলার হার দেখে হাজিরা নিয়ে নয়া ফরমান রাজ্য সরকারের ৷ সর্দি-কাশি-জ্বরের কোনওরকম উপসর্গ থাকলে অফিস আসতে হবে না, নির্দেশিকা জারি করল নবান্ন ৷ একইসঙ্গে কন্টেইনমেন্ট জোনে বাড়ি এমন কর্মীদেরও বাড়ি থেকেই কাজের করার নির্দেশ ৷ এছাড়া প্রতিটি দফতরে একইদিনে উপস্থিত থাকা কর্মীর সংখ্যা বেঁধে দেওয়া ছাড়াও বসার ব্যবস্থা নিয়েও বিশেষ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের জারি করা নির্দেশিকায় ৷ নয়া নির্দেশিকায় বলা হয়েছে,
১) সম্পূর্ণ সুস্থ এবং করোনার কোনওরকম লক্ষণ নেই এমন কর্মীরাই অফিসে আসবেন৷ কোনও কর্মীর সামান্য জ্বর , সর্দি বা কাশি হলে তাঁকে আর অফিস আসতে হবে না ৷ প্রত্যেক কর্মী একদিন অন্তর অফিস আসবেন ৷ ২) কন্টেইনমেন্ট জোনের বাসিন্দা যেসব সরকারি কর্মী তাদের এলাকা যতদিন না পর্যন্ত বিপদমুক্ত বা সি ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভু্ক্ত না হচ্ছে তাদের ওয়ার্ক ফর্ম হোমই করতে হবে ৷ ৩) প্রতি সপ্তাহে সরকারি কর্মীদের রোস্টার বানানো হবে ৷১০ জনের বেশি কর্মী একই জায়গায় থাকতে পারবেন না ৷ একই টেবিলে বলা কর্মীদের মধ্যে অন্তত ২ মিটার দূরত্ব রাখতে হবে ৷ এক টেবিলে ২ মিটার দূরত্ব রেখে ১০ জন কর্মীর বসার ব্যবস্থা না করা গেলে কর্মী সংখ্যা আরও কমিয়ে দেওয়ার নির্দেশ ৷ সেক্ষেত্রে ৭০ শতাংশ কর্মী উপস্থিত থাকতে হবে  এমন নয় ৷ ৪) ডেপুটি সেক্রেটারি পদের চেয়েও উঁচুতে কাজ করেন যে সব সরকারি কর্মী এবং যাদের নিজস্ব কেবিন অথবা আলাদা বসার জায়গা আছে তাদের প্রতিদিন নির্দিষ্ট সাধারণ সময়েই অফিস করতে হবে ৷ ৫)রোস্টার ও অন্য কারণে যে সব অফিসার ও কর্মীরা বাড়ি থেকে কাজ করবেন, তাদের ই-অফিসের মাধ্যমে কাজ করতে হবে ৷ কারোর বাড়িতে এই সুবিধা না থাকলে সরকারি আইটি কর্মীদের সাহায্যে সেই ব্যবস্থা করতে হবে ৷ ৬)অফিসে মাস্ক বাধ্যতামূলক ৷ বার বার সাবানে হাত ধোওয়া ও স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে ৷ কেউ মাস্ক না পড়লে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা করা হবে ৷ ৭) সরকারি অফিসে ভিজিটারদের বসার ব্যবস্থাও দূরত্ববিধি মেনে করতে হবে ৷ ৮) অফিসে কর্মীদের ব্যবহারের জিনিস ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, মাউস, মনিটর, কি-বোর্ড, এসি রিমোট ইত্যাদি নিয়ম মেনে নিজেদেরই স্যানিটাইজ করতে হবে ৷ ৯) সবাই স্পর্শ করে এমন জায়গা ইলেকট্রিক সুইচ, দরজার হাতল, লিফটের সুইচ অন্তত ১৫ দিনে একবার স্যানিটাইজ করতেই হবে ৷ ১০) মুখোমুখি বসে মিটিং বা আলোচনা যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলতে হবে ৷ ইন্টারকম, ফোন বা ভিডিও কনফারেন্সে সারতে হবে কাজ ৷ ১১) লিফটে একসঙ্গে তিনজনের বেশি ব্যক্তি উঠতে পারবেন না ৷ Sourav Guha
Published by: Elina Datta
First published: June 9, 2020, 7:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर