New initiative of postal department:ডাক বিভাগ করাবে অস্থি বিসর্জন, অনলাইনে দেখতে পারবেন আত্মীয়রা

Indian Post

এজন্য নিহতদের আত্মীয়দের ডাক বিভাগের স্পিড পোস্টে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন (Registartion) করতে হবে।

  • Share this:

    #যোধপুর: করোনার ছোবলে (Coronavirus)মৃত্যু মিছিল দেশ জুড়ে। মৃত্যুর পর নিকট আত্মীয়ের দেহও দেখা যাচ্ছে না৷ শেষকৃত্য তো দূরের কথা৷ করোনায় মৃত্যুতে, দেহ থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ভয়ে মৃতের পরিবার, দাহ করতে ভয় পান এবং অস্থি বিসর্জনেও সঙ্কোচ বোধ করেন৷ এবার এই সব ক্ষেত্রে সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছে ভারতীয় ডাক বিভাগ৷ একটি উপায় খুঁজে বার করেছেন ডাক বিভাগের(Indian Post) কর্তারা। অস্থি বিসর্জের উদ্যোগ নিয়ে একটি নতুন পরিকল্পনা শুরু হয়েছে। ডাক বিভাগের এই প্রকল্পের আওতায় নিহতদের স্বজনরা অস্থি বিসজর্ন অনলাইনে দেখতে পাবেন, সরাসরি।

    যোধপুর শহরে, করোনায় এবং করোনা ছাড়াও অন্যান্য রোগে যাদের মৃত্যু হয়েছে, তাদের অস্থি বিসর্জন করা হয়নি। ডাক বিভাগ এই বিষয়ে এক বিশেষ সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করেছে। ডাক বিভাগ এখন অস্থি বিসর্জন সম্পর্কিত পুরো আচারটি হাতে নিয়েছে।

    এজন্য নিহতদের আত্মীয়দের ডাক বিভাগের স্পিড পোস্টে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এর পরে ডাক বিভাগ পুরোহিতদের দিয়ে অস্থি বিসর্জ করাবে। এর পাশাপাশি গোটা বিষয়টি পরিবারের সদস্যদের অনলাইনেও দেখানো হবে। অনুষ্ঠান শেষে গঙ্গাজলও বাড়িতে থাকা পরিবারের সদস্যদের কাছেও পাঠানো হবে।

    যোধপুর (Jodhpur)ডাক বিভাগ চারটি জায়গায় অস্থি বিসর্জনের ব্যবস্থা করেছে। বর্তমানে ডাক বিভাগ বারাণসী, প্রয়াগরাজ এবং হরিদ্বারের পাশাপাশি গয়াতে অস্থি বিসর্জন করবে। সংস্থার সদস্যরা প্রতিটি ধর্মীয় স্থানে ইতিমধ্যে সমস্ত ব্যবস্থা রেখেছেন।

    ডাক বিভাগের জেনারেল পোস্ট মাস্টার শচীন কিশোর বলেছিলেন যে করোনা কালে পরিবারের সদস্যরা অস্থি বিসর্জন করতে পারছেন না। এমতাবস্থায় এর জন্য চারটি তীর্থস্থানে এই স্কিম শুরু করা হয়েছে। তিনি বলেছিলেন যে শীঘ্রই আরও তীর্থস্থান নির্বাচন করা হবে।

    Published by:Pooja Basu
    First published: