corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিজ্ঞান বিভাগে পড়াশুনার ইচ্ছা, করোনা আবহে ভর্তি নিয়ে বেজায় চিন্তায় মাধ্যমিকে প্রথম অরিত্র

বিজ্ঞান বিভাগে পড়াশুনার ইচ্ছা, করোনা আবহে ভর্তি নিয়ে বেজায় চিন্তায় মাধ্যমিকে প্রথম অরিত্র

অন্তত দশ বছর করোনাকে সঙ্গী করেই দিন কাটাতে হতে পারে বলে মনে করছে মাধ্যমিকে প্রথম স্থানাধিকারী অরিত্র পাল।

  • Share this:

#মেমারি: করোনা যে পরিস্থিতির মধ্যে বিশ্বকে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে তা এখনই মিটে যাওয়ার নয়। আরও অন্তত দশ বছর করোনাকে সঙ্গী করেই দিন কাটাতে হতে পারে বলে মনে করছে মাধ্যমিকে প্রথম স্থানাধিকারী অরিত্র পাল। তার মতে, আগামী বেশ কয়েক বছর হয়তো আগের মত স্বাভাবিক জীবন যাপন করা যাবে না। পরিবর্তিত পরিস্থিতিকেই স্বাভাবিক বলে মেনে নিয়ে জীবন যাপন করতে হবে। তবে আশার কথা, সব দেশই দিনরাত এক করে প্রতিষেধক তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই প্রতিষেধক হাতে এলে হয়তো করোনার উদ্বেগ থেকে মুক্তি মিলবে।

মাধ্যমিকে প্রথম স্থান অধিকার করেও এখন প্রাণ খুলে হাসার উপায় নেই মেমারি অরিত্র পাল বা তার বাবা-মায়ের। সকলেরই মুখে মাস্ক বা ফেস কভার। করোনা আবহে স্বাস্থ্য বিধি মেনেই সকলের সঙ্গে দেখা করতে হচ্ছে তাঁদের। অরিত্র জানিয়েছে, করোনা পরিস্থিতির কারণে বহু মানুষ কাজ হারিয়েছেন। অনেকে আবার নতুন জীবিকা খুঁজে নিয়ে নতুন করে বাঁচার লড়াই চালাচ্ছেন। এভাবেই হয়তো একদিন সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে আসবে। তবে আগের মত স্বাভাবিক পরিস্থিতি আর হয়তো ফিরে আসবে না। নতুন এক পরিস্থিতিকেই আমাদের স্বাভাবিক বলে মেনে নিতে হবে।

অরিত্র জানায়, আগে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল ঘোষণা হয়ে গেলেই দু-একদিনের মধ্যে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যেত। করোনা পরিস্থিতির কারণে সেই ভর্তি কবে হবে তার কোনও ঠিক নেই। শুধু তাই নয়, বিজ্ঞান নিয়ে পড়ার কথা মানসিকভাবে স্থির করে নিয়ে পরীক্ষার পর থেকেই অল্প বিস্তর পড়াশোনা শুরু হয়েছে। কিন্তু করোনার কারণে বাইরে পড়তে যাওয়ার কোনও উপায় নেই। তাই অনলাইন ক্লাসই এখন ভরসা। প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস শুরু হয়নি। ফলে তাতে যে ব্যাঘাত ঘটবে তা এখনই টের পাচ্ছে অরিত্র।

অরিত্রর মতে, এখন আর বাইরে বেড়াতে যাবার কোনও উপায় নেই। এর ফলে হয়তো পর্যটন শিল্প ভীষণভাবে মার খাবে। আগামী এক দশক পর্যন্তও করোনা আমাদের সঙ্গী হয়ে থাকতে পারে। তাই যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে যতটা সম্ভব নিজেদের সতর্ক থেকে জীবন যাপন করতে হবে। এই পরিস্থিতির সঙ্গে সকলকে মানিয়ে নিতে হবে।

Saradindu Ghosh

Published by: Shubhagata Dey
First published: July 15, 2020, 5:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर