corona virus btn
corona virus btn
Loading

মুম্বইয়ে পোশাক তৈরি করতে গিয়ে আটকে বর্ধমান মুর্শিদাবাদের অনেকেই

মুম্বইয়ে পোশাক তৈরি করতে গিয়ে আটকে বর্ধমান মুর্শিদাবাদের অনেকেই
Photo- File

তাদের আবেদন, বাড়ি ফেরাতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিক প্রশাসন।

  • Share this:

#বর্ধমান: মুম্বইয়ের ধারাভিতে আটকে রয়েছেন এ রাজ্যের বেশ কয়েক জন যুবক। তাদের বেশিরভাগই পূর্ব বর্ধমান ও মুর্শিদাবাদ জেলার বাসিন্দা। লক ডাউনের জেরে কার্যত গৃহবন্দি তারা। হঠাৎ করে লক ডাউন শুরু হওয়ায় তারা সেখানে আটকে পড়েছেন। স্হানীয় পুলিশ প্রশাসনের কাছ থেকে কোনও সহযোগিতাই মিলছে না বলে অভিযোগ। এ রাজ্যে স্হানীয় জন প্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তাঁরা। তাদের আবেদন, বাড়ি ফেরাতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিক প্রশাসন।

 আটকে পড়া বাসিন্দাদের মধ্যে রয়েছেন বর্ধমানের সুমন মল্লিক। সুমন বলেন, একটা ঘরে এক সঙ্গে বেশ কয়েক জন দিন কাটাচ্ছি। হঠাৎ করে লক ডাউন শুরু হয়ে যাওয়ায় বাড়ি ফেরার কোনও সুযোগ পাইনি। কাজও বন্ধ। বাইরে দোকান পাট সব বন্ধ। খাদ্য সামগ্রী নেই। যেটুকু ছিল প্রায় শেষ। চাল ডাল কেনার মতো টাকাও অবশিষ্ট নেই। অন্য দিকে বাড়ি ওয়ালা টাকা চাইছে। বাকি দিনগুলো কিভাবে কাটবে বুঝে উঠতে পারছি না। সবারই এক অবস্থা।

মু্ম্বইয়ে ধারাভিতে মহিলাদের পোশাক তৈরির কাজ করেন সুমনরা। বর্ধমানের ভাতার থানা এলাকায় বাড়ি তার। ভাতারের আরও কয়েক জন রয়েছেন। মঙ্গলকোট, কাটোয়াতেও বাড়ি কয়েক জনের। অনেকের বাড়ি মুর্শিদাবাদ জেলায়। দু তিন জায়গায় একসঙ্গে কোনও  রকমে রয়েছেন তাঁরা। করজোড়ে তাঁরা রাজ্য সরকারের কাছে বাড়ি ফেরানোর আর্জি জানিয়েছেন। সুমনদের বক্তব্য, সবার কাছে যা অর্থ রয়েছে তাতে বড়জোর আর এক দু দিন কিছুটা খাবার জুটবে। তারপর কিভাবে দিন কাটবে তা আর জানা নেই। তাই রাজ্য সরকার বিশেষ গাড়িতে তাদের ফেরানোর ব্যবস্থা করুক - এমনটাই আর্তি জানাচ্ছেন তাঁরা।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকেই বহু মানুষ তাদের অসহায়তার কথা জানাচ্ছেন। আমরা তাঁদের বিস্তারিত ঠিকানা জেনে সংশ্লিষ্ট এলাকার প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়ে সহযোগিতার আবেদন জানাচ্ছি। বাইরে আটকে পড়া বাসিন্দাদের ব্যাপারে রাজ্য সরকার ওয়াকি বহাল রয়েছে।

Saradindu Ghosh

First published: March 30, 2020, 9:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर