• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • কোভিড যোদ্ধাদের সম্মান জ্ঞাপন, করোনা আবহে পথ দেখাচ্ছে কাশীপুরের 'অঙ্গীকার'

কোভিড যোদ্ধাদের সম্মান জ্ঞাপন, করোনা আবহে পথ দেখাচ্ছে কাশীপুরের 'অঙ্গীকার'

সমাজের সেই সব মানুষকে এক ছাতার তলায় এনে সম্মান জানালো কাশীপুরের অঙ্গীকার।

সমাজের সেই সব মানুষকে এক ছাতার তলায় এনে সম্মান জানালো কাশীপুরের অঙ্গীকার।

সমাজের সেই সব মানুষকে এক ছাতার তলায় এনে সম্মান জানালো কাশীপুরের অঙ্গীকার।

  • Share this:

#কলকাতা: গত সাত মাস ধরেই একেবারে সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে কোভিডের সঙ্গে লড়েছেন ওরা। সমাজকে করোনা থেকে দূরে রাখতে নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়াই করেছেন চোখে চোখ রেখে। সমাজের সেই সব মানুষকে এক ছাতার তলায় এনে সম্মান জানালো কাশীপুরের অঙ্গীকার।

বছরভর মানুষের পাশে থাকে অঙ্গীকার। কিন্তু এবারের পরিস্থিতিটা যে একেবারে অন্য। অঙ্গীকারও তাই বদলে ফেলেছিল নিজেদের চলার পথ। রোজ সকালে যারা ঝাড়ু হাতে আমাদের চারদিকটা পরিষ্কার রাখে বা তুলে নিয়ে যায় সমাজের বর্জ্য, তাদেরকে মঞ্চে তুলে সম্মান জানাল কাশীপুরের সমাজসেবী প্রতিষ্ঠান অঙ্গীকার। উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী সাধন পান্ডে, ব্যারাকপুর কমিশনারেটের এসিপি শুভঙ্কর ভট্টাচার্য।

অঙ্গীকারের সভাপতি প্রদীপ সাউ বলছিলেন, "কঠিন সময়ে নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন যারা, একদিন তাদের মঞ্চে তুলে  সম্মান জানালাম। আমরা থাকলাম শ্রোতার আসনে। সম্মানজ্ঞাপকের ভূমিকায়। অঙ্গীকারের এহেন কর্মকাণ্ডে মুগ্ধ রাজ্যের মন্ত্রী সাধন পান্ডে। নিজের দফতরের পক্ষ থেকে এককালীন সাহায্যের ঘোষণা করেন ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী। অঙ্গীকারের মঞ্চ থেকে সাধন বাবুর ঘোষণা,"আগামী দিনে শুধুমাত্র কাশীপুরের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকা থাকা নয়,  অঙ্গীকারের কাজের পরিধি বিস্তৃত হোক শহর জুড়ে রাজ্য জুড়ে।"ব্যা রাকপুরের পুলিশ কমিশনারেট শুভঙ্কর ভট্টাচার্য বলেন,"অঙ্গীকারের মহতি অনুষ্ঠানে এসে অঙ্গীকারবদ্ধ হলাম। যে কোন সময়ে, যে কোনও দরকারে ডাকলেই পাশে পাবেন।"

অঙ্গীকারের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা জানান হয় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বংশধর অমর্ত্য ঠাকুরকে। অনুষ্ঠানের মূল উদ্যোক্তা ও অঙ্গীকারের সক্রিয় সদস্য রাজা চক্রবর্তী বলেন," ভবিষ্যতেও একইরকমভাবে সমাজের কাজে ব্রতী থাকবে অঙ্গীকার।"

PARADIP GHOSH 

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: