• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • করোনা আতঙ্কে বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক, সংক্রমণের ভয়ে বাড়িও ফিরছেন না যোগীন্দর শর্মা

করোনা আতঙ্কে বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক, সংক্রমণের ভয়ে বাড়িও ফিরছেন না যোগীন্দর শর্মা

করোনা সংক্রমণের ভয় নিয়েই ডিউটিতে যোগীন্দর৷ PHOTO- FILE

করোনা সংক্রমণের ভয় নিয়েই ডিউটিতে যোগীন্দর৷ PHOTO- FILE

করোনা সংক্রমণ রুখত লকডাউন কার্যকর করতে এখন দিনের বেশিরভাগ সময়টাই রাস্তায় নেমে ডিউটি করতে হচ্ছে যোগীন্দরকে৷

  • Share this:

    #হরিয়ানা: পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতকে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনালে জিতিয়েছিলেন৷ ২০০৭ সালে বিশ্বকাপ জয়ের সেই নায়ক যোগীন্দর শর্মা এখন হরিয়ানার হিসারের ডেপুটি পুলিশ সুপার৷ বিশ্বকাপ ফাইনালের শেষ ওভারে স্নায়ুর চাপ ধরে রেখে দেশকে জিতিয়ে আনা যোগীন্দরও এখন করোনার ভয়ে বেশ আতঙ্কিত৷ সেই ভয় এতটাই যে নিজের পরিবারকে নিরাপদে রাখতে ডিউটি করে বাড়িতেও ফিরছেন না প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটার৷

    করোনা সংক্রমণ রুখত লকডাউন কার্যকর করতে এখন দিনের বেশিরভাগ সময়টাই রাস্তায় নেমে ডিউটি করতে হচ্ছে যোগীন্দরকে৷ নিজের কর্তব্যে অবশ্য কোনও গাফিলতি রাখছেন না প্রাক্তন এই ক্রিকেট তারকা৷ কিন্তু সেই কাজ করতে গিয়েই মাঝেমধ্যে অপরিচিতদের থেকে সংক্রামিত হওয়ার ভয় যে তাঁকেও গ্রাস করছে, একটি ক্রিকেট ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তা স্বীকার করে নিয়েছেন হরিয়ানার এই পুলিশ কর্তা৷

    যোগীন্দর বলেন, 'এখন আমার দিন শুরু হয় সকাল ৬টায়৷ আজকে আমি সকাল ৯টায় বেরিয়েছি, রাত ৮টায় ফিরছি৷ কিন্তু যখন তখন জরুরি ডাক এলেই আমায় বেরিয়ে পড়তে হবে৷ আমি না বলতে পারব না৷ আমার দায়িত্বটাই এমন৷'

    মূলত হিসারের গ্রামীণ এলাকার দায়িত্ব সামলাচ্ছেন যোগীন্দর৷ ট্রাক, বাসের চালকদের পাশাপাশি স্থানীয় বাসিন্দাদেরও সংক্রমণ রুখতে বাড়িতে থাকার প্রয়োজনীয়তা বোঝাতে হচ্ছে তাঁকে৷ প্রাক্তন ক্রিকেটার জানিয়েছেন, সম্প্রতি একদল পরিযায়ী শ্রমিক হেঁটেই উত্তরপ্রদেশ এবং বিহারে ফেরার চেষ্টা করছিল৷ সেই সময়ে হাতে মাইক থাকলেও তাঁদের অনেককেই জনে জনে বুঝিয়ে স্থানীয় একটি জায়গায় থাকার ব্যবস্থা করতে হয় যোগীন্দর এবং তাঁর সহকর্মীদের৷ এভাবে অপরিচিত মানুষের সংস্পর্শে আসায় করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা থাকছেই পুলিশকর্মীদের৷ ফলে যোগীন্দরও সেদিন কিছুটা ঘাবড়েই গিয়েছিলেন৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও আর পাঁচজন পুলিশকর্মীর মতোই নিজের কর্তব্য পালন করে চলেছেন তিনি৷

    তবে নিজের পরিবারকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চাননা যোগীন্দর৷ হিসারে যে এলাকায় তাঁর পোস্টিং, সেখান থেকে গাড়িতে ঘণ্টা দেড়েকের মধ্যেই রোহতকের বাড়িতে ফেরা সম্ভব৷ কিন্তু যেহেতু দিনভর তিনি বাইরে কাজ করছেন এবং বহু মানুষের সংস্পর্শে আসছেন, তাই এখন গত কয়েকদিন ধরে বাড়ি না ফিরে হিসারেই থেকে যাচ্ছেন যোগীন্দর৷ কারণ তিনি কোনওভাবে চান না, পরিবারের কারও মধ্যে সংক্রমণ ছড়াক৷ প্রাক্তন ক্রিকেটারের কথায়, 'আমি কোনও ঝুঁকি নিতে চাই না৷ যেহেতু দিনভর বহু মানুষের সংস্পর্শে আসি, তাই এই সময়টা পরিবারের থেকে দূরে থাকতে চাই৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: