করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বর্জ্য মাস্ক-গ্লাভস থেকেই দ্রুত ছড়াচ্ছে সংক্রমণ!কীভাবে ফেলবেন এগুলো, এল মহা গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা

বর্জ্য মাস্ক-গ্লাভস থেকেই দ্রুত ছড়াচ্ছে সংক্রমণ!কীভাবে ফেলবেন এগুলো, এল মহা গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা
Photo- Representative

মাস্ক নিয়ে এবার বড় বিবৃতি দিল কেন্দ্র সরকার৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ তীব্র গতিতে ছড়িয়ে পড়েছে৷ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাঁচতে বড় হাতিয়ার মাস্ক৷ মাস্ক নিয়ে এবার বড় বিবৃতি দিল কেন্দ্র সরকার৷ এর আগে মাস্ক ও গ্লাভসের ব্যবহার করতে বারবার আর্জি জানিয়েছে সরকার ৷ এর লাভ দেখা গেছে৷ সংক্রমণের হার কিছুটা হলেও যে নিয়ন্ত্রিত রয়েছে তার এটাই কারণ৷

এদিকে মানুষ মাস্ক ও গ্লাভস ব্যবহার করলেও তা কীভাবে বর্জ্য হিসেবে ব্যবহার করা হবে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ কারণ ভুলভাবে মাস্ক ও গ্লাভস বাতিল করার জন্য দ্রুত সেগুলি থেকে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ৷ কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের গাইডলাইন অনুযায়ি যার কোনও করোনা সংক্রমণ নেই তাদের ব্যবহার করা মাস্ক-গ্লাভস যত্রতত্র ফেলা উচিত নয়৷ সেগুলি একটি পেপার ব্যাগে ৭২ ঘণ্টা অবধি রেখে দেওয়া উচিত৷ এরপর সেটা কেটেকুটে ময়লা ফেলার ব্যাগে ফেলে দেওয়া উচিত৷ এটাকে কোভিড ওয়েস্ট হিসেবে না দেখা বায়ো ওয়েস্ট হিসেবে দেখা হবে৷

যদিও করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির মাস্ক ও গ্লাভসকে কোভিড ওয়েস্ট হিসেবে দেখা হবে৷ এই গ্লাভস ও মাস্ক ফেলতে হলে ঢাকনা দেওয়া বাক্স লাগবে৷ এই বর্জ্য নিতে কোভিড ওয়েস্ট বা বায়ো ওয়েস্টের আলাদা গাড়ি আসবে৷ তারপর নগরনিগমের সেই গাড়িতে ফেলা হবে ওয়েস্ট৷

দূষণ পরিষদ জানিয়েছে কোভিড রোগীদের ব্যবহার হওয়া সবকিছু কোভিড ওয়েস্ট নয়৷ গ্লাভস, মাস্ক, সিরিঞ্জ, ইউরিন ব্যাগ, বাতিল ওষুধ, বডি ফ্লুইড, রক্ত লাগা টিস্যু ও তুলো কোভিড ওয়েস্ট হবে৷ তবে ওষুধের বাক্স, খোলা, ফয়েলের টুকরো, জুসের বোতল কোভিড ওয়েস্ট হবে না৷

দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ দেখলে শিউড়ে উঠতে হচ্ছে৷ দিনে দিনে তা কমার নাম তো নেই, বরং তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠেছে৷ সারা দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ২০ লক্ষের গণ্ডিও পেরিয়ে গেল৷ শুক্রবার স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত ৬২ হাজার ৫৩৮৷ একদিন মৃত্যুর সংখ্যা ৮৮৬৷ দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ২০ লক্ষ ২৭ হাজার, ৭৪৷

Published by: Debalina Datta
First published: August 7, 2020, 3:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर