নির্দেশ মানছেন না মুখ্যসচিব, হুমকি দিচ্ছে পুলিশ, অভিযোগ কেন্দ্রীয় দলের প্রধানের

শিলিগুড়িতে কেন্দ্রীয় দলের সদস্যরা৷ PHOTO- FILE

মুখ্যসচিবকে উদ্দেশ্য করে লেখা নতুন এই চিঠিতে তাঁর বিরুদ্ধেই সবথেকে বেশি সরব হয়েছেন অপূর্ব চন্দ্র৷

  • Share this:

    #কলকাতা:  রাজ্যকে পাঠানো নতুন চিঠিতে সরাসরি মুখ্যসচিব রাজীব সিনহার ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রধান অপূর্ব চন্দ্র৷ রাজ্যের মুখ্যসচিব যে অবস্থান নিয়েছেন, তা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশিকার পরিপন্থী বলেও অভিযোগ করেছেন চন্দ্র৷ নতুন এই চিঠিতে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত অসহযোগিতার অভিযোগ তোলা হয়েছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের তরফে৷ একই সঙ্গে পুলিশের ভূমিকা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রধান৷

    মুখ্যসচিবকে উদ্দেশ্য করে লেখা নতুন এই চিঠিতে তাঁর বিরুদ্ধেই সবথেকে বেশি সরব হয়েছেন অপূর্ব চন্দ্র৷ চিঠিতে তিনি অভিযোগ করেছেন, কেন্দ্রের তরফে নির্দেশ দেওয়া হলেও রাজ্য সরকার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে কোনওরকম সহযোগিতা করছে না৷ কেন তাঁদের নিরাপত্তায় পুলিশ দেওয়া হচ্ছে না, সেই প্রশ্নও তুলেছেন অপূর্ব চন্দ্র৷ পুলিশ না দিল তাঁদের নিরাপত্তার দায় রাজ্য নেবে কিনা, জানতে চাওয়া হয়েছে তাও৷

    কলকাতার প্রতিনিধি দলটি মূলত বিএসএফ-কে সঙ্গে নিয়েই বিভিন্ন জায়গায় ঘুরছে৷ চিঠিতে অপূর্ব চন্দ্র জানতে চেয়েছেন, পুলিশের অনুপস্থিতিতে তাঁদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে বিএসএফ-এর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে কিনা? পাশাপাশি রাজ্যের তরফে তাঁদের পিপিই দেওয়া হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করা হয়েছে৷

    অপূর্ব চন্দ্রের চিঠি৷

    তবে চিঠিতে সবথেকে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলে অপূর্ব চন্দ্র লিখেছেন, সংবাদমাধ্যমে মুখ্যসচিব বলেছেন, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে অত সময় দেওয়া যাবে না৷ তাঁর এই মন্তব্য কেন্দ্রীয় নির্দেশের অবমাননা বলেও চিঠিতে স্পষ্ট লেখা হয়েছে৷ মুখ্যসচিবকে কেন্দ্রীয় দলের তরফে চারটি চিঠি পাঠানো হলেও একটিরও জবাব রাজ্য দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন অপূর্ব চন্দ্র৷ তবে মিডিয়ার মাধ্যমে রাজ্যের সঙ্গে কোনও কথার আদানপ্রদান তাঁরা করবেন না বলেও জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রধান৷ একইসঙ্গে কেন তাঁদের সঙ্গে সিনিয়র অফিসার না পাঠিয়ে স্বাস্থ্য দফতরের জুনিয়র অফিসারদের পাঠানো হচ্ছে, সেই প্রশ্নও তোলা হয়েছে চিঠিতে৷

    পাশাপাশি চিঠিতে অভিযোগ করা হয়েছে, বিমানবন্দরে যাওয়া ছাড়া কলকাতায় বিএসএফ-এর গেস্ট হাউস থেকে বিনা অনুমতিতে তাঁরা বেরোতে পারবেন না বলেও ফোনে নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশের এক ডিসিপি পদমর্যাদার অফিসার৷ পুলিশের এই আচরণেও অসন্তুষ্ট কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রধান৷ পুলিশের ওই ডিসিপি রীতিমতো তাঁদের হুমকি দিয়েছেন বলে চিঠিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অপূর্ব চন্দ্র৷ যথারীতি এই চিঠির একটি কপি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভল্লাকে পাঠিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রধান৷ এর পর রাজ্যের কী পদক্ষেপ হয়, সেটাই এখন দেখার৷

     
    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: