ভোটের জন্য ভিড় না করার দাবিতে পিপিই পরে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ

ভোটের জন্য ভিড় না করার দাবিতে পিপিই পরে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ

এমনিতে কোভিডের প্রকোপ বাড়ায় নির্বাচন কমিশন নানা বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

এমনিতে কোভিডের প্রকোপ বাড়ায় নির্বাচন কমিশন নানা বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

  • Share this:

#কলকাতা: দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে করোনার। ক্রমশ বেড়েই চলেছে করোনার প্রকোপ।তার মধ্যেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ভোটের উত্তেজনা। স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করেই দলে দলে রাজনৈতিক সংগঠনগুলি তাদের সভা-সমাবেশ করে চলেছে। তাতে আরও বাড়ছে করোনা, এমনই বলছেন স্বাস্থ্যকর্মী থেকে চিকিৎসকরা। বাধ্য হয়েই বেশ কয়েক জন একত্রিত হয়ে নির্বাচন কমিশনের অফিসের সামনে প্রতিবাদ করেন করোনায় ভোট সংগঠিত করা নিয়ে। অভিনব ভাবে পিপিই পরে ওই প্রতিবাদ করেন বিক্ষোভকারীরা। এমনকী, প্রয়োজনে করোনার প্রকোপ থামাতে ভোট প্রক্রিয়া স্থগিত রাখারও আর্জি জানিয়েছেন তাঁরা। তাঁদের বক্তব্য, ভোট গ্রহণের বদলে অ্যাপের মাধ্যমে বা অন্য কোনও প্রক্রিয়ায় করুক কমিশন। "আমরা নন-পলিটিক্ল্যাল, আমরা খেটে খাওয়া নাগরিক" এই ব্যানারে প্রতিবাদ সংগঠিত করেন ওই সব মানুষ। বিক্ষোভকারীদের পক্ষে  সুমন মিত্র বলেন, "আমরা বিশ্ব সাস্থ্য দিবসের দিনে বাধ্য হয়ে প্রতিবাদে নেমেছি। যে ভাবে এ রাজ্যে করোনার প্রকোপ বাড়ছে এবং তা সত্ত্বেও বাঙালি ভোট নিয়ে মেতে রয়েছে, তা দেখে সারা বিশ্ব বাংলার দিকে তাকিয়ে হাসছে। আমরা এই প্রহসন বন্ধ করতে চাই। সে জন্যই আমরা রাস্তায় নেমে এর প্রতিবাদ করছি। এমনকী, প্রয়োজনে করোনার প্রকোপ থামাতে ভোট প্রক্রিয়া স্থগিত রাখারও আর্জি জানিয়েছি আমরা।"

এমনিতে কোভিডের প্রকোপ বাড়ায় নির্বাচন কমিশন নানা বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। কিন্তু সে সবের তোয়াক্কা না করেই প্রচার চলছে। রাজনৈতিক নেতা-কর্মীরা  অভিনব ভাবে পিপিই পরে ওই প্রতিবাদ করেন বিক্ষোভকারীরা। এমনকী, প্রয়োজনে করোনার প্রকোপ থামাতে ভোট প্রক্রিয়া স্থগিত রাখারও আর্জি জানিয়েছেন ওই তাঁরা। তাঁদের বক্তব্য, ভোট গ্রহণের বদলে অ্যাপের মাধ্যমে বা অন্য কোনও প্রক্রিয়ায় করুক কমিশন।   স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করেই দলে দলে রাজনৈতিক সংগঠনগুলি তাদের সভা-সমাবেশ করে চলেছে। তাতে আরও বাড়ছে করোনা।  কিছুই না মেনে ঘুরে বেড়ানো এবং এ সব বন্ধ করতেই আর্জি জানিয়েছেন ভোট বন্ধের জন্য। নির্বাচন কমিশনের কাছে একটি স্মারকলিপিও পেশ করেছেন।

Published by:Pooja Basu
First published: