• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • Delhi Unlock 5.0: আজ থেকে খুলে যাচ্ছে জিম, যোগা সেন্টার, বিয়েবাড়িতে ৫০ জনের অনুমতি

Delhi Unlock 5.0: আজ থেকে খুলে যাচ্ছে জিম, যোগা সেন্টার, বিয়েবাড়িতে ৫০ জনের অনুমতি

একনজরে আগামী সপ্তাহে কী কী বন্ধ থাকবে দিল্লিতে, জানুন

একনজরে আগামী সপ্তাহে কী কী বন্ধ থাকবে দিল্লিতে, জানুন

একনজরে আগামী সপ্তাহে কী কী বন্ধ থাকবে দিল্লিতে, জানুন

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: গত তিন মাসে সর্বোচ্চ নেমেছে রাজধানী দিল্লির করোনাভাইরাসের দৈনিক সংক্রমণ (Delhi Coronavirus)। গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৯ জন। এর থেকে পরিষ্কার যে করোনার ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের (Covid19 India) গ্রাফ ক্রমশই ফ্ল্যাট হচ্ছে। যার জেরে সোমবার, ২৮ জুন থেকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) আনলক ৫ (Delhi Unlock 5.0) ঘোষণা করেছেন। তবে সরকারের তরফে কিছুটা বিধিনিষেধ এখনও রাখা হয়েছে।

    দিল্লির ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটি (ডিডিএমএ) জানিয়েছে যে, সোমবার মানে ২৮ জুন থেকে ৫০ শতাংশ লোক নিয়ে জিম, যোগা সেন্টারগুলি খোলা হচ্ছে। প্রায় দুমাস বন্ধ থাকার পর খুলতে চলেছে জিম সহ যোগাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। সেই সঙ্গে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারবেন ৫০ জন। এর আগে ২০ জনের অনুমতি ছিল। আজ ভোর ৫টা থেকে লাগু হয়েছে আনলক ৫। যদিও ডিডিএম এর আদেশে স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে যে এই জায়গাগুলিতেও করোনার নির্দেশিকা অনুসরণ করা প্রয়োজন। সিনেমা, থিয়েটার, স্পা সহ স্কুল-কলেজ আপাতত বন্ধই থাকবে রাজধানীতে। বন্ধ থাকবে সুইমিং পুল সহ বিনোদন পার্ক।

    গত সপ্তাহ থেকে খুলে গিয়েছে দিল্লির দোকানপাট। আংশিক খুলেছে মার্কেট, রেস্তরাঁ। সেলুনও খোলার অনুমতি মিলেছে। সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সমস্ত বাজারহাট খোলা। ৫০ শতাংশ লোক নিয়ে রেস্তোরাঁ খোলা হচ্ছে। সেলুন ও সাপ্তাহিক দিল্লির বাজার খোলা হবে। একেকটি মিউনিসিপ্যাল জোনে একটি করে সাপ্তাহিক বাজার খোলা যাবে। ধর্মীয় স্থান সব খুলে দেওয়া হবে। তবে কোনও মানুষে সেখানে যেতে পারবেন না। স্কুল, কলেজ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হবে। রাজনৈতিক ও সামাজিক জনসমাগম বন্ধ রাখা হবে। গণপরিবহণ খুলবে ৫০ শতাংশ লোক নিয়ে। মেট্রো খুলবে একই নিয়মে। অটোয় ২ জন, খুলবে ট্যাক্সিও।

    করোনা ভাইরাসের বাড়বাড়ন্তের কারণে গত ১৯ এপ্রিল থেকে দেশের রাজধানী দিল্লিতে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল। তার পর থেকে প্রয়োজন ও পরিস্থিতি অনুযায়ী লকডাউনে সময়সীমা বাড়িয়েছে সরকার। শেষ কয়েকদিনে করোনার দৈনিক সংক্রমণ লাগাতার কমতে থাকার ফলেই এবার শুরু হয়েছে আনলক পর্যায়। গত ৩১ মে থেকেই ধাপে ধাপে আনলক করছে দিল্লি সরকার।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: