Coronavirus | ‘সাবধান না হয়ে সব জায়গায় ঘুরে যদি ভাবেন আমাদের কিছু হবে না, তাহলে ভুল করছেন’, যুবসমাজকে মোদির বার্তা

Coronavirus | ‘সাবধান না হয়ে সব জায়গায় ঘুরে যদি ভাবেন আমাদের কিছু হবে না, তাহলে ভুল করছেন’, যুবসমাজকে মোদির বার্তা
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

প্রধানমন্ত্রীর আর্জি, খুব প্রয়োজন ছাড়া রবিবার সকাল সাতটা থেকে রাত ন’টা পর্যন্ত ঘর থেকে বেরোবেন না। একইসঙ্গে দেশের তরুণ তরুণীদের উদ্দেশে মোদির সাবধানবাণী,

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিশ্বযুদ্ধের থেকেও ভয়াবহ পরিস্থিতি ৷ এভাবেই দেশের বর্তমান করোনা আক্রান্ত পরিস্থিতিকে বর্ণনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ করোনা মোকাবিলায় জনতা কার্ফুয়ের দাওয়াই প্রধানমন্ত্রীর। জাতির উদ্দেশে ভাষণে দেশবাসীকে রবিবার, একদিনের জন্য কার্ফু পালনের ডাক দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রীর আর্জি, খুব প্রয়োজন ছাড়া রবিবার সকাল সাতটা থেকে রাত ন’টা পর্যন্ত ঘর থেকে বেরোবেন না। একইসঙ্গে দেশের তরুণ তরুণীদের উদ্দেশে মোদির সাবধানবাণী, ‘আপনারা যদি নিয়মের তোয়াক্কা না করে ঘরে থাকার বদলে ভিড় জায়গায় ঘুরে বেড়ান আর ভাবেন আমাদের তো কিছুই হবে না, তাহলে সেটা একদমই ভুল ৷ ’

করোনার প্রকোপ ঠেকাতে সোশাল ডিস্টেনসিং বা সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। এবার ভাইরাস মোকাবিলায় জনতা কার্ফুয়ের দাওয়াই দিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একইসঙ্গে দেশের তরুণ তরুণীদের সাবধান হওয়ার বার্তা প্রধানমন্ত্রীর ৷ বলেন, ‘নিজে বাঁচলে তবে সমাজ বাঁচবে৷ খুব দরকার না পড়লে বাড়ি থেকে বেরবেন না ৷ বাড়ির বয়স্কদের খেয়াল রাখুন ৷’ বৃহস্পতিবার রাতে জাতির উদ্দেশে ভাষণে, একদিনের জন্য কার্ফু পালনের আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর মতে, রবিবারের জনতা কার্ফুয়ের অভিজ্ঞতা দেশকে ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করবে। করোনার কারণে দু’টি বিশ্বযুদ্ধের চেয়েও ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। মারণ ভাইরাস নিয়ে দেশবাসীর একাংশের গা ছাড়া মনোভাবের সমালোচনা করেন তিনি। সংকটের পরিস্থিতিতে সোশাল ডিস্টেনসিং কতটা গুরুত্বপূর্ণ তাও বোঝানোর চেষ্টা করেন প্রধানমন্ত্রী।

করোনার বিরুদ্ধে লড়ছেন চিকিৎসকরা। আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে খাটছেন পুলিশকর্মীরাও। তাই জনতা কার্ফুর দিনেই জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের ধন্যবাদ জানানোর আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

First published: March 19, 2020, 10:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर