লক ডাউনের প্রথম দিনের তুলনায় দ্বিতীয় দিন শহরে যানবাহনের সংখ্যা কম, পুলিশি তৎপরতাও জোরদার

লক ডাউনের প্রথম দিনের তুলনায় দ্বিতীয় দিন শহরে যানবাহনের সংখ্যা কম, পুলিশি তৎপরতাও জোরদার

মঙ্গলবার রাত ১২টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছেন লক ডাউন চলবে টানা ২১ দিন।

  • Share this:

#কলকাতা: দ্বিতীয় দিনে যেন কিছুটা হুশ ফিরেছে কলকাতা বাসীর। লক ডাউনের প্রথম দিনের তুলনায় দ্বিতীয় দিন সকালে দক্ষিণ কলকাতার রাস্তাঘাটে যানবাহন অনেক কম। একই সঙ্গে প্রথম দিনের মতই পুলিশি তৎপরতাও যথেষ্ট।

করোনা ভাইরাসের জের, চলছে লক ডাউন। মঙ্গলবার রাত ১২টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছেন লক ডাউন চলবে টানা ২১ দিন। এবার আর দেশের বাছাই করা কিছু শহর বা জেলা নয়। লক ডাউন হবে দেশ জুড়ে। প্রধানমন্ত্রীর কথাই সম্পূর্ণ লকডাউন।

পরের দিন সকাল বেলা কলকাতার রাস্তাঘাটের চেহারা প্রথম দিনের তুলনায় কিছুটা হলেও ভালো। বুধবার সকাল বেলা দক্ষিণ কলকাতার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ রাসবিহারী মোড়ের চিত্রটা কিছুটা হলেও তুলনামূলক ভাবে ভালো। মঙ্গলবার লক ডাউনের প্রথম দিন শহরের বিভিন্ন এলাকায় যেমন দেখা গেছিল বহু মানুষ বাড়ির বাইরে বেরিয়েছেন কোনও কাজ ছাড়াই। রাস্তাঘাটে যানবাহনের সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মতো। পরিস্থিতি সামলাতে নাজেহাল হতে হয়েছিল পুলিশকে। এলাকায় এলাকায় মাইকে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত সরকারি নির্দেশ নামা ঘোষণা করা সত্বেও পরোয়া করেনি কেউ। তাই বেলার দিকে পুলিশ বাধ্য হয় বল প্রয়োগ করতে।

তবে বুধবার চিত্রটা কিছুটা হলেও ভালো। শহরের একাধিক জায়গায় পুলিশের তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। প্রতিটি গাড়ি বাইক স্কুটারের পাশাপাশি পথচলতি মানুষদেরও প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে। পরিচয় পত্র, কিসের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বেরিয়েছেন সবকিছু খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে জানতে চাওয়া হচ্ছে।

সরকারের এত প্রচার চলছে সর্বক্ষণ, প্রধানমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রী বারবার আবেদন করছেন বাড়ি থেকে না বেরোনোর। তারপরও পরিস্থিতি বুঝতে পারছেন না অনেকেই। রবিবার জনতা কার্ফু-এর দিন মানুষ যেমন সম্পূর্ণ ভাবে নিজেদেরকে গৃহবন্দী করে রেখেছিল সেই চিত্র লক ডাউনের প্রথম দিন একেবারেই ছিল না। বুধবার দ্বিতীয় দিনও সকালবেলার অবস্থা জনতা কার্ফু-এর থেকে খারাপ। তারপরও বলতেই হয় লক ডাউনের প্রথম দিনের তুলনায় দ্বিতীয় দিনে কিছুটা হলেও হুশ ফিরেছে সাধারণ মানুষের।

SOUJAN MONDAL

First published: March 25, 2020, 10:53 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर