সংক্রমণ রুখতে শিলিগুড়ির ‌রেগুলেটেড মার্কেট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত

ভালো খবরও রয়েছে। মারণ করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন আরও ৩৮ জন

ভালো খবরও রয়েছে। মারণ করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন আরও ৩৮ জন

  • Share this:

    #‌শিলিগুড়ি:‌ করোনা আক্রান্ত বেড়েই চলছে দার্জিলিং জেলায়। বাড়ছে শিলিগুড়ি পুরসভার সংযোজিত ওয়ার্ডগুলোতেও। আজ নতুন করে আক্রান্ত ‌হয়েছেন ১৫ জন। এর মধ্যে পুরসভা এলাকাতেই আক্রান্ত ১৪! সবচেয়ে দুশ্চিন্তার নতুন করে আক্রান্তদের একটা বড় অংশের আবার রেগুলেটেড মার্কেটের সঙ্গে যোগ রয়েছে। পুরসভার আক্রান্ত ১৪ জনের মধ্যে ৯ জনের যোগ রয়েছে রেগুলেটেড মার্কেটের সঙ্গে৷ দেরিতে হলেও জেলা প্রশাসন রেগুলেটেড মার্কেট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

    শনিবার থেকেই মার্কেটের মাছের আড়ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সাত দিনের জন্যে। কাল অর্থাৎ সোমবার থেকে বন্ধ থাকবে মার্কেটের সবজি ও ফলের আড়তও। টানা ৭ দিন মার্কেট বন্ধ থাকবে। আজ মার্কেট স্যানিটাইজ করেন দমকল কর্মীরা। শহরবাসীর একটা বড় অংশ আগে থেকেই মার্কেট বন্ধের দাবী জানিয়ে আসছিলেন। কেননা ভিনরাজ্য তো বটেই ভিনজেলার গাড়ি নিয়মিত এসছে রেগুলেটেড মার্কেটে। কোনওরকম থার্মাল চেকিংও হয়নি বলে অভিযোগ। শিলিগুড়ি পুরসভার ৪৬ নং ওয়ার্ডে ক্রমেই আক্রান্ত বাড়ছে। তবে আজ নতুন করে পাহাড়ে আক্রান্তের খোঁজ মেলেনি। যদিও শিলিগুড়ি লাগোয়া জলপাইগুড়ি জেলার ইস্টার্ন বাইপাস সংলগ্ন এলাকায় নতুন করে ৭ জন আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। ওই এলাকারই এক বাসিন্দা গত সপ্তাহে আক্রান্ত হন। তাঁর সংস্পর্শে আসায় নতুন করে ৭ জন আক্রান্ত হন। এর মধ্যে আক্রান্তের এক ছেলে সহ ২ জন রয়েছেন। বাকি ৫ জন প্রতিবেশী। স্বাভাবিকভাবেই বাড়ছে উদ্বেগ। ওই এলাকাকে কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান আগামী ১৫ দিনের খাদ্যসামগ্রী এলাকায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া এলাকা ছাড়া যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে স্থানীয় পঞ্চায়েত।

    এদিকে ভালো খবরও রয়েছে। মারণ করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন আরও ৩৮ জন। আজ সুস্থ হয়ে শিলিগুড়ির দুই জন কোভিড স্পেশাল হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক এস পুন্নমবালাম।

    Partha Sarkar

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: