COVID19: চিতায় আগুন দিতেই উঠে বসলেন করোনা রোগী! শুরু করলেন হাউহাউ করে কান্না

File Photo

মৃতদেহ গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানেই তাঁর শেষকৃত্যের প্রস্তুতি শুরু (COVID19 Dead body)হয়েছিল।

  • Share this:

    #পুণে: দেশে বিপুল সংখ্যক করোন ভাইরাস সংক্রমণের পাশাপাশি প্রচুর মানুষের মৃত্যু হচ্ছে৷ সম্প্রতি, বেশ কয়েকটি শহরে শ্মশান ঘাটে প্রচুর সংখ্যক দেহ পোড়ানোর ছবিও উঠে এসেছিল (Coronavirus dead body)। তবে এখন পরিস্থিতি কিছুটা উন্নত হয়েছে। এদিকে, পুণের একটি ঘটনা সবার নজর কেড়ে নিয়েছে৷ সেখানে এক বয়স্ক মহিলা তাঁর চিতায় আগুন দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উঠে বসে পড়েন!

    ঘটনাটি মহারাষ্ট্রের পুণে শহরের (Pune COVID19)। মুধলে গ্রামের বাসিন্দা ৭৮ বছর বয়সী শকুন্তলা গায়কওয়াদের কিছুদিন আগে করোনার সংক্রমণ হয়েছিল (Corona affected old woman)। তিনি করোনা আক্রান্ত জানার সংক্রমণের জন্য তাঁকে নিশ্চিত হওয়ার সাথে সাথেই তাকে বাড়িতে আলাদা করে রাখা হয়েছিল। এর পরে, বয়সের কারণে কিছু গুরুতর উপসর্গও তাঁর মধ্যে দেখা যেতে শুরু করে।

    ১০ মে, তাঁর পরিবারের সদস্যরা অ্যাম্বুলেন্স (Ambulance)ডেকে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান। তাঁর পরিবার হাসপাতালে পৌঁছে সেখানে বেডের ব্যবস্থাও করছিল। এই সময়, শকুন্তলা বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাম্বুলেন্সে ছিলেন। এবং সেখানে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান (COVID19 infected woman senseless)৷ এরপরই অ্যাম্বুলেন্স কর্মীরা মহিলার অবস্থা দেখে মহিলাকে মৃত বলেন৷ পরিবারও সে কথা মেনে নেয় এবং নিকট আত্মীদের বৃদ্ধার মৃত্যুর খবর দিয়ে দেন তাঁরা৷ সেখান থেকে ফের তাঁর মৃতদেহ গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানেই তাঁর শেষকৃত্যের প্রস্তুতি শুরু হয়েছিল।

    তবে বৃদ্ধার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় জন্য তাঁর চিতায় আগুন জ্বালানো মাত্রই তাঁর হুঁশ ফিরে আসে। চারিদিকে বীভৎস অবস্থা দেখে তিনি চোখ খুলল কেঁদে ফেলেন। এর পরে তাঁকে বারামতির রজতজয়ন্তী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। গ্রামের স্বাস্থ্য আধিকারিক এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

    Published by:Pooja Basu
    First published: