Fake Vaccination: টিকা জালিয়াতি কাণ্ড প্রকাশ্যে আসতেই তৎপর প্রশাসন, জেলাশাসকদের কড়া নির্দেশ মুখ্য সচিবের

টিকা জালিয়াতি কাণ্ড প্রকাশ্যে আসতেই তৎপর প্রশাসন, নবান্নের কড়া নির্দেশ জারি।

কসবা টিকা জালিয়াতির মূল পাণ্ডা ভুয়ো IAS দেবাঞ্জনের গ্রেফতারির পর নড়েচড়ে বসেছে রাজ্যও সরকার।

  • Share this:

    #কলকাতা: কসবা টিকা জালিয়াতির মূল পাণ্ডা ভুয়ো IAS দেবাঞ্জনের গ্রেফতারির পর নড়েচড়ে বসেছে রাজ্যও সরকার। কোনওভাবেই যাতে আর রাজ্যের মানুষ টিকা জালিয়াতির শিকার না হন, তার জন্য রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলা শাসকদের কড়া নির্দেশ রাজ্যের মুখ্য সচিবের।

    করোনা ভ্যাক্সিনেশন সেন্টার রাজ্য সরকার চালাক বা বেসরকারিভাবে মানুষকে টিকা দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হোক,  সেই সমস্ত টিকা কেন্দ্রগুলিকে প্রশাসনের অনুমোদিত হতে হবে। কেন্দ্রগুলিকে অনুমোদিত সিভিসি নম্বর ও এবং বাধ্যতামূলকভাবে 'cowin' সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে ভ্যাকসিনেশনের জন্য।   যে ভ্যাকসিনগুলি দেওয়া হবে, সেগুলির নির্দিষ্ট ব্যাচ নম্বর এবং ডেট অফ এক্সপায়েরির উল্লেখ থাকতে হবে। জেলাশাসকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সব মিউনিসিপ্যালিটি গুলিকে যাতে দ্রুত সতর্ক করা হয় এবং সরকার হোক বা বেসরকারি উদ্যোগে হোক, সকলকেই টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট প্রটোকল মানতে হবে।

    স্বাস্থ্যসচিব এই মর্মে একটি বিস্তারিত অ্যাডভাইজারি জারি করবেন শীঘ্রই। নবান্ন সূত্রে খবর, মুখ্য সচিব এইচকে দ্বিবেদী  শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রথমবার বৈঠক করেন জেলা শাসকদের সঙ্গে। সেখানেই বার্তা দেওয়া হয় কড়া হাতে টিকা জালিয়াতি যাতে কোনওভাবেই না হয়, তার নজরদারি চালাতে হবে। এরপর শনিবার তিনি আবারও বৈঠকে বসেন, সেখানে অ্যাডভাইজারির বিষয়টি জানানো হয়।

    সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায় 

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: