করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা থেকে বাঁচাতে কার্টুনের মাধ্যমে মগজ ধোলাই! নাগরিক সচেতনতায় কার্টুন দলের প্রয়াস...

করোনা থেকে বাঁচাতে কার্টুনের মাধ্যমে মগজ ধোলাই! নাগরিক সচেতনতায় কার্টুন দলের প্রয়াস...
Cartoon to Fight Corona

শিল্পীদের কথায়, 'আনলক পর্ব চললেও এখনও আমরা করোনা মুক্ত নই। সংক্রমণ হু হু করে বাড়ায় ফের কিছু কিছু জায়গায় কড়া লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। সরকার যেমন নানাভাবে প্রচারাভিযান চালাচ্ছে, কার্টুনের মাধ্যমে আমরাও মানুষকে করোনা থেকে বাঁচার পথ দেখাচ্ছি'।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা  থেকে বাঁচতে নানান প্রচার অভিযান চলছে। তবুও এখনও অনেকেই বেপরোয়া। সেই সমস্ত অসচেতন নাগরিকদের সচেতন করতেই উদ্যোগ শহরের কার্টুন দলের। সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনা কার্টুন ক্রমশ জনপ্রিয় হচ্ছে। কার্টুনের মাধ্যমে মগজ ধোলাইয়ের চেষ্টা সফল হবে বলে আশাবাদী ব্যঙ্গ চিত্রশিল্পীরা। 'থাকবো না আর বদ্ধ ঘরে দেখবো এবার বাজারটাকে'। আমজনতার বাজার করার হিড়িক অথবা অকারণে রাস্তাঘাটে ঘোরাফেরা করায় নিজেই বিপন্ন নাগরিক সমাজে ভাইরাসের ছোবলে নিত্যদিন ঘায়েল হচ্ছেন মানুষ।

যেখানে ঘরে থাকাই নিরাপদ সেখানে বাইরে বেরিয়ে করোনাকে কার্যত ওয়াকওভার দিয়ে চলেছেন একশ্রেণীর অসচেতন নাগরিক। সুরক্ষা বিধি উপেক্ষা করেই বাজারে থলে ভর্তি করার তাগিদে হাটে-বাজারে জনতার ঢল । একই ছবি রাস্তাঘাটেও। অকারণে ঘোরাফেরা। বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখানো মানুষদের চোখে আঙুল দিয়ে বোঝাবেই বা কে? প্রশাসন যথেষ্ট প্রচার চালাচ্ছে, তাতেও যেন সজাগ হচ্ছেন না কেউ৷ এবার তাই আসরে করোনা কার্টুন!

ব্যঙ্গচিত্রের মাধ্যমে কলকাতা শহরের কয়েক জন সচেতন নাগরিক অসচেতন নাগরিকদের সচেতন করতে  উদ্যোগী হয়েছেন। ঘরে থেকেই কাজের ফাঁকে ফাঁকে ব্যতিক্রমী ভাবনা। মাস্ক পরা থেকে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা। যত্রতত্র থুতু ফেলা থেকে অকারণে বাড়ির বাইরে না বের হওয়া। রোগীদের নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সের ছোটাছুটি। কিংবা গাদাগাদি করে ভিড় বাসে না ওঠা। এই ধরণের নানান সচেতনতামূলক বার্তা ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে কার্টুনের মাধ্যমে। ওয়ার্ক ফ্রম হোমে  কাজের চাপ। তারই  মাঝে সময় বের করে কার্টুনের মাধ্যমে বাঙালির এক প্রকার মগজ ধোলাইয়ের  চেষ্টায় মশগুল শহরের নামজাদা কার্টুন শিল্পীরা। উদ্যোগে সামিল নতুন প্রজন্মও।

প্রতিদিনই নতুন নতুন ভাবনা সৃষ্টির মাধ্যমে ভেসে উঠছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। লক্ষ্য মানুষকে আরও  বেশি করে সচেতন করে মারণ ভাইরাসের ছোবল থেকে রক্ষা করা। নিজেদের কার্টুন দলের  ফেসবুক পেজ থেকে অন্যান্য বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে হরেক রকম কার্টুন। নিজেদের করোনা ভাবনাকে তাঁরা কার্টুনের মাধ্যমে তুলে ধরছেন  সোশ্যাল মিডিয়ায়। লাইক-শেয়ার অস্ত্রে বাহুবলি করোনা  তখন মানুষকে অন্যভাবে ভাবাচ্ছে। বাঁচার পথ দেখাচ্ছে। শহরের নামজাদা কার্টুনিস্ট উদয় দেব বলেন, 'কার্টুন একটা এমনই মাধ্যম, মানুষ যার সঙ্গে খুব সহজেই একাত্ম হতে  পারে। তাই মানুষের কথা ভেবেই আমাদের এই অভিনব সচেতনতার  উদ্যোগ'।

Cartoon to Fight Corona Cartoon to Fight Corona

কার্টুনের জনপ্রিয়তাকে হাতিয়ার করে সম্পূর্ণ আধুনিক আঙ্গিকে রঙিন করে তোলা হচ্ছে ব্যঙ্গচিত্র। আঁকা থেকে লেখায় কলকাতা সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের এক ঝাঁক কার্টুনিস্টরা নিজেদের নানান ভাবনার মাধ্যমে মানুষকে সচেতন করতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। শপথ নিয়েছেন মানুষকে বাঁচানোর। ব্যাঙ্গালোর থেকে বাংলা । দেশের বিভিন্ন প্রান্তের পাশাপাশি শহর কলকাতার কার্টুন দলের সদস্যরাও  নিয়মিত এক 'অন্য' করোনা যুদ্ধে নিজেদের সৃষ্টিতে মশগুল। বিবেক সেনগুপ্ত, উদয় দেব, উজ্জ্বয়িনী, অভিষেকদের মতো আরও অনেকেই আজ করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে কার্টুনের রক্ষাকবচকে হাতিয়ার করে সচেতনতা প্রচার চালাচ্ছেন।

শিল্পীদের কথায়, 'আনলক পর্ব চললেও এখনও আমরা করোনা মুক্ত নই। সংক্রমণ হু হু করে বাড়ায় ফের কিছু কিছু জায়গায় কড়া লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। সরকার যেমন নানাভাবে প্রচারাভিযান চালাচ্ছে, কার্টুনের মাধ্যমে আমরাও মানুষকে করোনা থেকে বাঁচার পথ দেখাচ্ছি'।

Published by: Pooja Basu
First published: July 8, 2020, 5:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर