Bengal Corona Update : জুলাইয়ের প্রথম দিনেই রাজ্যে উর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফ, সামান্য কম দৈনিক মৃত্যু...

বাংলার করোনা গ্রাফ

তবে আশার কথা গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে (Coronavirus) মৃতের(Covid-19 Death) সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ২৭ জন। গতকাল সেই সংখ্যাটা ছিল ২৯ জন।

  • Share this:

    #কলকাতা : আজ ১ জুলাই চিকিৎসক দিবসের (Doctor's Day) দিনেই বঙ্গের করোনা গ্রাফ (Coronavirus) ফের উর্ধ্বমুখী। গত ২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে রাজ্যের দৈনিক করোনা (Daily Corona Cases) সংক্রমণ। আক্রান্ত হয়েছেন দেড় হাজারের বেশি মানুষ। গতকাল সংখ্যাটা ছিল দেড় হাজারের নীচে। ফের উর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফ উদ্বেগ ধরিয়েছে। তবে আশার কথা গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে মৃতের(Corona Death) সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ২৭ জন। গতকাল সেই সংখ্যাটা ছিল ২৯ জন।

    বৃহস্পতিবার রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১,৫০১ জন। তবে ঊর্ধ্বমুখী সুস্থতার হার। স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিতদের মধ্যে ১৪১ জন পশ্চিম মেদিনীপুরের। অর্থাৎ উত্তর ২৪ পরগনাকে (North 24 Parganas) দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে প্রথম স্থানে ওই জেলা। দ্বিতীয় স্থানে উত্তর ২৪ পরগনা। একদিনে সংক্রমিত সেখানকার ১৩৬ জন। তৃতীয় স্থানে দার্জিলিং। একদিনে সেখানকার ১৩৫ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। এদিনও কলকাতা চতুর্থ স্থানে। সেখানে একদিনে সংক্রমিত ১২৭ জন। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের করোনা (CoronaVirus) গ্রাফও নিম্নমুখী। তবে দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিম মেদিনীপুর ও উত্তরবঙ্গের দার্জিলিংয়ে যেভাবে বাড়ছে সংক্রমণ, তা স্বাভাবিকভাবেই চিন্তা বাড়াচ্ছে। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫,০১,২৮৪ জন।

    রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ২৭ জনের মধ্যে ৪ জন উত্তর ২৪ পরগনার, ৪ জন কলকাতা ও ৪ জন দার্জিলিংয়ের বাসিন্দা। জলপাইগুড়ি, নদিয়া ও পশ্চিম বর্ধমানে এদিনে করোনা ভাইরাসের বলি ৩ জন করে। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৭, ৭৩৫ জন। খুশির খবর এদিনও করোনাকে পরাস্ত করে ঘরে ফিরেছেন ১,৮৮৯ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ১৪, ৬৩, ৩৭৯। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার দাঁড়িয়েছে ৯৭. ৪৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৫৪ হাজার ৭৪১ জনের। এখনও পর্যন্ত মোট করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১,৪২,৭২,৯৩৩ জনের।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: