corona virus btn
corona virus btn
Loading

৭৫ শতাংশ দাম বৃদ্ধি, কমছে দোকানের সংখ্যা, মদ বিক্রি কমাতে পদক্ষেপ অন্ধ্র প্রদেশে

৭৫ শতাংশ দাম বৃদ্ধি, কমছে দোকানের সংখ্যা, মদ বিক্রি কমাতে পদক্ষেপ অন্ধ্র প্রদেশে
প্রতীকী ছবি৷

লকডাউনের মধ্যে মদের দোকান খোলার পর প্রথমে মদের দাম ২৫ শতাংশ বাড়ায় অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার৷ তার পরের দিনই আরও ৫০ শতাংশ দাম বাড়ানো হয়৷

  • Share this:

#অন্ধ্র প্রদেশ: মদের দোকান খুললেও একধাক্কায় ৭৫ শতাংশ দাম বাড়িয়ে দিয়েছিল অন্ধ্র প্রদেশ সরকার৷ এবার মদ্যপান কমাতে রাজ্যে মদের দোকানের সংখ্যা কমানোর সিদ্ধান্ত নিল তারা৷ রাজ্যের মোট ১৩ শতাংশ মদের দোকান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগনমোহন রেড্ডি সরকার৷ বলাই বাহুল্য, লকডাউনের সময় রাজস্ব আদায়ের জন্য অনেক রাজ্যই যখন মদ বিক্রির উপরে নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে, তখন উল্টো পথে হাঁটল অন্ধ্র প্রদেশ সরকার৷

মদের দোকান বন্ধ করার এই নির্দেশিকা শনিবারই জারি করা হয়েছে৷ গোটা দেশে যখন রাজকোষ ভরাতে এক রকম বাধ্য হয়েই মদের দোকান খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার, সেখানে অন্ধ্র সরকারের মদের দোকান কমানোর এই সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে তাৎপর্য্যপূর্ণ৷

ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ওয়াই এস জগনমোহন রেড্ডি সরকার মদ বিক্রির দায়িত্ব বেসরকারি ক্ষেত্র থেকে সরকারের হাতে নিয়ে নিয়েছেন৷ একধাক্কায় মদের দোকানের সংখ্যাও ৩৩ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হয়৷ ৪৩৮০ থেকে কমিয়ে মদের দোকানের সংখ্যা ২৯৩৪ করে দেওয়া হয়৷ পানশালার সংখ্যাও ৪০ শতাংশ কমিয়ে দিয়েছে অন্ধ্র সরকার৷

অন্ধ্রপ্রদেশে পুরো মদ বিক্রির প্রক্রিয়াটাই সরকার নিয়ন্ত্রিত করে৷ সরকারি দোকান থেকেই কেবলমাত্র মদ বিক্রি করা হয়৷ প্রসঙ্গত নির্বাচনে জিতে আসার আগে জগনমোহন রেড্ডি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, ক্ষমতায় এলে অন্ধ্রে মদ বিক্রি এবং মদ্যপান নিষিদ্ধ করা হবে৷

লকডাউনের মধ্যে মদের দোকান খোলার পর প্রথমে মদের দাম ২৫ শতাংশ বাড়ায় অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার৷ তার পরের দিনই আরও ৫০ শতাংশ দাম বাড়ানো হয়৷ রাজস্ব আদায় বিভাগের বিশেষ মুখ্য সচিব রজত ভার্গভ জানিয়েছেন, রাজ্যে মদ্যপান কমানো এবং মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষিত রাখতেই মদের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি করা হয়েছে৷

সরকারি তথ্য অনুযায়ী ২০১৯- এর অক্টোবর থেকে ২০২০ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত রাজ্যে মদের বিক্রি ২৪ শতাংশ কমেছে৷ ওই একই সময়ে বিয়ারের বিক্রি ৫৫ শতাংশ কমে গিয়েছে৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: May 10, 2020, 3:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर