১৭ মে-র পর দেশের বাছাই কয়েকটি রুটে চালু হতে পারে যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা

Representational Image

এর জন্য প্রয়োজনীয় সবরকম ব্যবস্থা নেওয়াও হয়ে গিয়েছে ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ট্রেনের পাশাপাশি এবার ধীরে ধীরে যাত্রী বিমান পরিষেবা চালু করতে চলেছে কেন্দ্র ৷ দুটি গ্রিন জোন শহরের মধ্যে বিমান চলতে পারে, এমনটা আভাস আগেই দেওয়া হয়েছিল ৷ এবার সিএনএন নিউজ১৮-এর খবর অনুযায়ী ১৭ মে-র পর থেকে দেশের বিভিন্ন বাছাই করা রুটে চালু হতে পারে বিমান পরিষেবাও ৷ বিমান পরিবহণ মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী কিছুদিন আগেই এক সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, করোনা সংক্রমণের ভিত্তিতে ক্রমাগত জোনগুলো পরিবর্তন হচ্ছে। ফলে এই মুহূর্তে আন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা চালু করা একটা বড় চ্যালেঞ্জের বিষয়। কিন্তু সেই চ্যালেঞ্জকে সামনে রেখেই ১৭ তারিখের পর থেকে অল্প অল্প করে যাত্রী বিমান পরিষেবা চালুর পরিকল্পনাই রয়েছে কেন্দ্রের ৷ এর জন্য প্রয়োজনীয় সবরকম ব্যবস্থা নেওয়াও হয়ে গিয়েছে ৷

    গত ২৫ মার্চ লকডাউন চালু হওয়ার পর থেকেই দেশে ট্রেন ও বিমান পরিষেবা পুরোপুরি স্তব্ধ। সূত্রের খবর, ১৭ মে তৃতীয় দফার লকডাউন উঠলে বাণিজ্যিক বিমান কী ভাবে চালানো যায় তা নিয়ে বিমান সংস্থাগুলোর সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে কেন্দ্র। তবে বিষয়টি যে ধাপে ধাপেই শুরু করেছে কেন্দ্র ৷ এ ব্যাপারে আগেই স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে ৷ দেশের বিভিন্ন বিমানবন্দরের সমস্ত ব্যবস্থা সোমবার সকালে খতিয়ে দেখেন BCAS এবং DGCA-র কর্তারা ৷ যাত্রী এবং বিমানকর্মীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য সমস্ত রকম ব্যবস্থাই নেওয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে ৷ দেশের ২৫ শতাংশ রুটে প্রাথমিকভাবে বিমান পরিষেবা চালুর পরিকল্পনা রয়েছে ৷ দু’ঘণ্টার কম দূরত্বের রুটে যাত্রীদের জন্য ক্যাটারিং ব্যবস্থা বা খাবার না দেওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে ৷

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: