corona virus btn
corona virus btn
Loading

গুজরাত হল মেটিয়াবুরুজ, ফেসবুকে ভুয়ো ভিডিও পোস্ট করে গ্রেফতার গাইঘাটার ব্যক্তি

গুজরাত হল মেটিয়াবুরুজ, ফেসবুকে ভুয়ো ভিডিও পোস্ট করে গ্রেফতার গাইঘাটার ব্যক্তি

২৯ মার্চ ভিডিওটি পোস্ট হয়। তাতে লেখা হয় সেটি মেটিয়াবুরুজ এলাকার। তবে আজ কলকাতা পুলিশ তাঁদের ফেসবুক এবং ট্যুইটার হ্যান্ডেলে ভিডিওর একটি স্ক্রিনশট তুলে তা পোস্ট করে জানিয়েছেন, পুরো বিষয়টাই মিথ্যা। ভিডিওটি কলকাতার নয়।

  • Share this:

#কলকাতাঃ করোনা সংক্রমণ যত মারাত্মক আকার নিচ্ছে ততই বাড়ছে ভুয়ো খবর। আর তা নিমেষে ছড়িয়ে পড়ছে সোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে। লক ডাউনে সকলের গৃহবন্দি। ফলে সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ স্বাভাবিক সময়ের থেকে অনেক বেশি। লক ডাউনের আবহেই এবার গুজরাতের একটি ভিডিওকে কলকাতার মেটিয়াবুরুজের বলে ফেসবুকে পোস্ট করার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দারা। ধৃতের বিরুদ্ধে ১২০বি, ১৫৩এ, ৫০৫ (১) (বি/২) এবং আইটি অ্যাক্টে মামলা রুজু হয়েছে।

ফেসবুকে পোস্ট হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে পুলিশ এবং পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ব্যাপক ইটবৃষ্টি করছে ক্ষিপ্ত জনতা। কোনও মতে জিপ চড়ে এলাকা থেকে পালিয়ে যাচ্ছেন পুলিশ আধিকারিকরা। ২৯ মার্চ ভিডিওটি পোস্ট হয়। তাতে লেখা হয় সেটি  মেটিয়াবুরুজ এলাকার। তবে আজ কলকাতা পুলিশ তাঁদের ফেসবুক এবং ট্যুইটার হ্যান্ডেলে ভিডিওর একটি স্ক্রিনশট তুলে তা পোস্ট করে জানিয়েছেন, পুরো বিষয়টাই মিথ্যা। ভিডিওটি কলকাতার নয়। সেটি গুজরাতের একটি পুরনো ভিডিও।

কলকাতা পুলিশের তরফে যে ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে, তাতে হিমাংশু দেবনাথ নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারীর পোস্টের ছবি দিয়ে জানানো হয়েছে, যে ভিডিওটি  মেটিয়াবুরুজ এলাকার বলে পোস্ট করা হয়েছে, সেটি সেখানকার নয়। বরং তা গুজরাতের একটি পুরোনো ভিডিও। এরপরেই যিনি এই ভিডিও পোষ্ট করেছেন, তাঁর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের বন্দোবস্ত করা হয়েছে বলে জানান হয়েছে। এরপর  এদিনই সন্ধ্যায় গাইঘাটায় তার বাড়ি থেকে অভিযুক্ত হিমাংশু দেবনাথকে গ্রেফতার করে লাল্বাজারের গোয়েন্দারা।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর আমেদাবাদের শাহ-ই-আলম এলাকায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) প্রতিবাদে বিক্ষোভ থামাতে গেলে পুলিশের সঙ্গে জনতার ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। বিক্ষোভকারীদের ছোড়া ইটের আঘাতে পাঁচ পুলিশকর্মী জখম হন। ভিডিওটি সেই ঘটনারই। মেটিয়াবুরুজে সম্প্রতি এই ধরনের ঘটনা ঘটেনি বলেই জানা গিয়েছে।

First published: April 17, 2020, 11:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर