করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনাভাইরাস শরীরে কমিয়ে দেয় লোহিত রক্তকণিকা! জেনে নিন নিরাপদ থাকতে আয়রন-যুক্ত কী কী খাবার খাবেন

করোনাভাইরাস শরীরে কমিয়ে দেয় লোহিত রক্তকণিকা! জেনে নিন নিরাপদ থাকতে আয়রন-যুক্ত কী কী খাবার খাবেন
Representational Image

হিমোগ্লোবিন তৈরি না হলে আমাদের দেহের বিভিন্ন কলা বা টিস্যু এবং পেশিতে অক্সিজেন পৌঁছোয় না, এরা ঠিক ভাবে কাজও করতে পারে না। ফলে রক্তাল্পতা বা অ্যানিমিয়া দেখা দেয়।

  • Share this:

#কলকাতা: আধুনিক জীবন বড়ই দ্রুত। আর এই আধুনিক লাইফস্টাইলে অভ্যস্ত জীবনে আকছার শরীরে নানা প্রয়োজনীয় উপাদানের ঘাটতি দেখা যায়। এদের মধ্যে একেবারে প্রথমেই বলা যায় আয়রন ঘাটতির কথা। আয়রনের ঘাটতিতে দেহের লোহিত রক্তকণিকার সংখ্যা একেবারে কমে যায়। কারণ আয়রন ছাড়া দেহে হিমোগ্লোবিন তৈরি হয় না। আর হিমোগ্লোবিন তৈরি না হলে আমাদের দেহের বিভিন্ন কলা বা টিস্যু এবং পেশিতে অক্সিজেন পৌঁছোয় না, এরা ঠিক ভাবে কাজও করতে পারে না। ফলে রক্তাল্পতা বা অ্যানিমিয়া দেখা দেয়।

সম্প্রতি প্রকাশিত নানা সমীক্ষা দাবি করছে যে করোনাকালে এই রক্তাল্পতা সহজেই বিপদ ডেকে আনে। কেন না, শরীরে প্রবেশের পর করোনাভাইরাস লোহিত রক্তকণিকা তৈরিতে বাধা দেয়। তাই বিশেষ যে সব খাবারে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে, দেখে নেওয়া যাক তাদের তালিকা।

১. বিট- শুধু আয়রনই না, প্রোটিন, কপার, ভিটামিন, সালফার, সবই থাকে এই বিটে।

২. বাঁধাকপি- আয়রনের ঘাটতি দূর করে, ওজন কমায়, ত্বক ভালো রাখে, রক্তচাপ কমায়, শরীর ডিটক্সিফাই করে। ৩. ব্রোকোলি- প্রচুর পরিমাণে আয়রন, ভিটামিন বি, সি থাকে, ম্যাগনেসিয়াম এবং জিঙ্ক থাকে। ৪. বেদানা- এই ফলে যথেষ্ট পরিমাণে প্রোটিন, ভিটামিন, আয়রন, ফাইবার থাকে। ৫. আপেল- ইংরেজি প্রবাদেই রয়েছে দিনে একটি করে আপেল খেলে তা চিকিৎসকের থেকে দূরে রাখে। ৬. কমলালেবু- আমরা সবাই জানি কমলায় প্রচুর ভিটামিন সি থাকে। এ ছাড়া প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে। কমলা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, ওজন কমায়। ৭. পালং- প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, আয়রন, খনিজ থাকে। রক্তাল্পতা থেকে রক্ষা করে এবং হিমোগ্লোবিনের মাত্রা ঠিক রাখে। সম্প্রতি ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথোরিটি দেহে আয়রন ঘাটতি কমানোর কিছু উপায় বাতলে দিয়েছে। সাধারণত, শৈশবে, ঋতুকালীন অবস্থায় অবং গর্ভাবস্থায় নারীদেহে আয়রনের ঘাটতি হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থাকে। দেখে নেওয়া যাক ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথোরিটি-র পরামর্শ। ১. আয়রন ফর্টিফায়েড স্টেপল (ভাত, আটা, ময়দা আয়রনসমৃদ্ধ লবণ) দিয়ে রান্না করা। ২. খাবারের সঙ্গে চা কফি পান না করা । ৩. আয়রনসমৃদ্ধ ফল এবং সবজি বেশি পরিমাণে খাওয়া। ৪. শরীরের আয়রনশোষণ ক্ষমতা বাড়াতে বেশি করে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া। মাছ, মাংস, মুরগির ডিমে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে। এগুলো খেলে খুব সহজেই দেহে আয়রন পৌঁছয়। এ ছাড়া কোন কোন ফল আর সবজি না খেলেই নয়, তা আগেই বলে দেওয়া হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে সেই মতো একটা ডায়েট চার্ট বানিয়ে নিন, সুস্থ থাকুন।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: November 16, 2020, 10:11 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर