• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • বেড়েই চলেছে লকডাউন, সিমেন্ট মিক্সারের মধ্যে লুকিয়ে পাড়ি দিলেন বাড়ি ফিরতে মরিয়া ১৮ পরিযায়ী শ্রমিক

বেড়েই চলেছে লকডাউন, সিমেন্ট মিক্সারের মধ্যে লুকিয়ে পাড়ি দিলেন বাড়ি ফিরতে মরিয়া ১৮ পরিযায়ী শ্রমিক

পকেটে টাকা নেই, মাথার উপর ছাদ নেই, এমন অবস্থায় মরিয়া পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে কেউ হাজার হাজার কিলোমিটার পায়ে হাঁটছেন আবার কেউ কেউ নানা ফন্দি খাটিয়ে ঘরে ফেরার উপায় বার করছেন ৷

পকেটে টাকা নেই, মাথার উপর ছাদ নেই, এমন অবস্থায় মরিয়া পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে কেউ হাজার হাজার কিলোমিটার পায়ে হাঁটছেন আবার কেউ কেউ নানা ফন্দি খাটিয়ে ঘরে ফেরার উপায় বার করছেন ৷

পকেটে টাকা নেই, মাথার উপর ছাদ নেই, এমন অবস্থায় মরিয়া পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে কেউ হাজার হাজার কিলোমিটার পায়ে হাঁটছেন আবার কেউ কেউ নানা ফন্দি খাটিয়ে ঘরে ফেরার উপায় বার করছেন ৷

  • Share this:

    #ইন্দোর: লকডাউনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে কয়েকলক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক ৷ কবে ফিরতে পারবেন বাড়ি কেউ নির্দিষ্ট করে বলতে পারছেন না ৷ পকেটে টাকা নেই, মাথার উপর ছাদ নেই, এমন অবস্থায় মরিয়া পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে কেউ হাজার হাজার কিলোমিটার পায়ে হাঁটছেন আবার কেউ কেউ নানা ফন্দি খাটিয়ে ঘরে ফেরার উপায় বার করছেন ৷ এমনই চমকে দেওয়া ঘটনা সামনে এল মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে ৷ বাড়ি ফিরতে মরিয়া ১৮ শ্রমিক সিমেন্ট মিক্সারের মধ্যে লুকিয়ে পাড়ি দিয়েছিলেন ৷

    করোনা ঠেকাতে দেশ জুড়ে লকডাউন ৷ লকডাউন যাতে ঠিকমতো মানা হয় তার জন্য সর্বত্র কড়াকড়ি ৷ এক রাজ্যের সীমানা পেরিয়ে অন্য রাজ্যে যাতে কেউ না ঢুকে পড়ে তার জন্য চলছে নাকা চেকিং ৷ মধ্যপ্রদেশে ইন্দোরের কাছে শনিবার এমনই চেকিংয়ের সময় সামনে এল চমকে দেওয়া ঘটনা ৷ সিমেন্ট মিক্সার গাড়ির ভিতরে উঁকি মারতেই চক্ষু চড়কগাছ পুলিশকর্মীর ৷ এক-দুজন নয়, ১৮ জন মানুষ গাদাগাদি করে লুকিয়ে বসে আছেন দমবন্ধ করা সিমেন্ট মিক্সার ট্রাকের পেটের মধ্যে ৷

    পুলিশ জানিয়েছে, লকডাউনে বাড়ি ফেরার অন্য কোনও রাস্তা না পেয়ে এই পথই বেছে নিয়েছিলেন ১৮ পরিযায়ী শ্রমিক ৷ মহারাষ্ট্র থেকে উত্তরপ্রদেশে নিজেদের গ্রামে ফিরতে শুক্রবার ট্রাকে ওঠেন ৷ মধ্যপ্রদেশের সীমানায় প্রবেশ করতেই নাকা চেকিংয়ে ফাঁস হয় আসল ঘটনা ৷ মধ্যপ্রদেশের ডিএসপি, উমাকান্ত চৌধুরি বলেন, ‘ট্রাক মালিকে বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে ৷ সিমেন্ট মিক্সারটিকে আনা হয়েছে পুলিশ স্টেশনে ৷ ওই ১৮ জন পরিযায়ী শ্রমিককে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর অস্থায়ী শিবিরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ৷ তাদের বাড়ি পৌঁছানোর জন্য একটি বাসের ব্যবস্থাও ইতিমধ্যে করে দিয়েছে প্রশাসন ৷’

    উল্লেখ্য, ঘরে ফিরতে মরিয়া চেষ্টা এই প্রথম নয় ৷ বাড়ি ফিরতে পায়ে হেঁটে বা সাইকেল চালিয়ে ক্লান্তিতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ার মতোও ঘটনা সামনে এসেছে ৷ প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এমন খবরই আসছে লকডাউনে বন্ধ সমস্ত পরিবহন ৷ তবু আশ্রয়-সম্বলহীন মরিয়া হাজার হাজার শ্রমিক হাঁটছেন হাজার হাজার কিলোমিটার, শুধু নিজেদের ভিটেমাটিতে পৌঁছনোর তাড়নায় ৷

    Published by:Elina Datta
    First published: