Home /News /business /
Petrol and Diesel: আগামী ৫ বছরে দেশে নিষিদ্ধ করা হবে পেট্রোল, দাবি নীতিন গড়করির!

Petrol and Diesel: আগামী ৫ বছরে দেশে নিষিদ্ধ করা হবে পেট্রোল, দাবি নীতিন গড়করির!

Petrol and Diesel: আগামী ৫ বছরের মধ্যে দেশে পেট্রোল নিষিদ্ধ করা হবে এবং দেশে এর প্রয়োজনও আর থাকবে না।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সাধারণ মানুষের পক্ষে দেশে পেট্রোল ব্যানের (Petrol Ban) বিষয়টি কল্পনা করাও সম্ভব না। পেট্রোল ছাড়া মানুষের জীবনযাত্রা একরকমের স্থগিত হয়ে যাবে। ব্যক্তিগত কাজ থেকে শুরু করে ব্যবসায়িক ব্যবহার, সবেতেই পেট্রোলের কোনও বিকল্প নেই। তবে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী নীতিন গড়করি (Nitin Gadkari) পেট্রোল নিয়ে এমন একটি মন্তব্য করেছে যাতে অবাক সকলেই। তিনি বলেছেন, আগামী ৫ বছরের মধ্যে দেশে পেট্রোল নিষিদ্ধ করা হবে এবং দেশে এর প্রয়োজনও আর থাকবে না। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই দাবি কতটা সত্য তা ভবিষ্যতেই জানা যাবে তবে দেশে পেট্রোলের চেয়ে সস্তার বিকল্প চালু হলে তা সাধারণ মানুষ মূল্যবৃদ্ধির এই বাজারে অনেকটা স্বস্তি পাবে।

আরও পড়ুন: পিএম কিষাণের বিশাল আপডেট! এই কৃষকেরা পাবেন না টাকা, তালিকায় আপনিও?

বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের আকোলার ডক্টর পাঞ্জাবরাও দেশমুখ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৬ তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়েছিলেন নীতিন গড়করি। এই অনুষ্ঠানেই তিনি পেট্রোল ব্যানের বিষয়টি নিয়ে বলেন যে আগামী সময়ে দেশে পেট্রোল নিষিদ্ধ করা হবে। এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ওই কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গড়করিকে 'ডক্টর অফ সায়েন্স' ডিগ্রিও প্রদান করা হয়। এই অনুষ্ঠানে সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ভগৎ সিং কোশিয়ারি।

ইথানল হল সাশ্রয়ের চাবিকাঠি

কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী নীতিন গড়করি এদিন বলেন যে ইথানলের একটি সিদ্ধান্তে দেশের ২০,০০০ কোটি টাকা সাশ্রয় হয়েছে। অদূর ভবিষ্যতে দুই চাকার মোটরবাইক এবং চার চাকার গাড়িগুলি সবুজ হাইড্রোজেন, ইথানল এবং সিএনজি ভিত্তিক হবে। জ্বালানি হিসেবে পেট্রোলের যায়গায় এই উপদানগুলি ব্যবহার করা হবে।

আরও পড়ুন: মোদি সরকারের কর্মীদের বকেয়া DA নিয়ে সব থেকে বড় আপডেট, অ্যাকাউন্টে টাকা আসছে

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিষয় তিনি বলেন, বিদর্ভ থেকে বাংলাদেশে তুলা রফতানি করার পরিকল্পনা রয়েছে। এই পরিকল্পনার সফলতার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সহযোগিতা প্রয়োজন। বিদর্ভের কৃষক আত্মহত্যা প্রতিরোধে বিশ্ববিদ্যালয়গুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

আরও পড়ুন: যত খুশি পাখা-এয়ার কন্ডিশনার-ফ্রিজ চালান, বিদ্যুতের বিল দিতে হবেনা একটি টাকাও

দিন দিন প্রযুক্তি এত বেশি উন্নতি হচ্ছে যে অনেকেই মনে করছেন ধীরে ধীরে বিশ্বে পেট্রোলের চাহিদা কমে যাবে। বর্তমানে ভারতেও ইলেকট্রিক কার এবং মোটরবাইকের চাহিদা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। পেট্রোলের আকাশছোঁয়া দামের জন্য গ্রাহকরা সস্তা এবং সাশ্রয়ী বিকল্প বেছে নিচ্ছেন।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Nitin Gadkari, Petrol And Diesel Price

পরবর্তী খবর