Home /News /business /
Union Budget 2022: বাজেটে ট্যাক্স ছাড়? জনতার বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়ানোয় কী পরিকল্পনা কেন্দ্রের?

Union Budget 2022: বাজেটে ট্যাক্স ছাড়? জনতার বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়ানোয় কী পরিকল্পনা কেন্দ্রের?

যা হতে চলেছে...

যা হতে চলেছে...

Union Budget 2022: ভারতের অর্থনীতির ভিত মজবুত করার জন্য বিনিয়োগকারীরা আসন্ন বাজেটের দিকে তাকিয়ে রয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ১ ফেব্রুয়ারি ইউনিয়ন বাজেট ২০২২-২৩ পেশ করতে চলেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন (Nirmala Sitharaman)। আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে বিভিন্ন ধরনের ট্যাক্স ছাড়ের ঘোষণা করা হতে পারে। জনগণের অবসরের সেভিংস এবং বাচ্চাদের ভবিষ্যতের সেভিংসের জন্য আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন ধরনের ট্যাক্স ছাড়ের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা উচিত। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের প্রভাবের জন্য আসন্ন ইউনিয়ন বাজেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। কারণ আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে কেন্দ্রীয় সরকারের মাথায় রাখতে হবে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ভারতে বিভিন্ন ক্ষেত্রের পরিকাঠামোর উন্নয়ন করা, চাকরির বাজার তৈরি করা এবং অর্থনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। ভারতের অর্থনীতির ভিত মজবুত করার জন্য বিনিয়োগকারীরা আসন্ন বাজেটের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে কেন্দ্রীয় সরকারের যে বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দেওয়া দরকার সেগুলো হল -

সোশ্যাল সিকিউরিটি ও রিটায়ারমেন্ট বেনিফিট -

২০২১ সালে ভারতের সিনিয়র সিটিজেনের সংখ্যা ছিল প্রায় ১৩.১ মিলিয়ন। সুতরাং ২০৪১ সালে এর সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ২৩.৯ মিলিয়নে। এর ফলে ভারতের এই বিশাল সংখ্যক সিনিয়র সিটিজেনের জন্য উপযুক্ত সোশ্যাল সিকিউরিটি ও রিটায়ারমেন্ট বেনিফিটের ব্যবস্থা করা দরকার। এর জন্য আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য ট্যাক্স ছাড়ের ব্যবস্থা করা। ট্যাক্স ছাড় ছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে ভারতের সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য বিভিন্ন ধরনের আর্থিক প্রকল্প চালু করা। যে সকল আর্থিক প্রকল্পের মাধ্যমে সিনিয়র সিটিজেনদের সোশ্যাল সিকিউরিটি প্রদান করা সম্ভব হবে এবং অবসরের পর তাদের আর্থিক সুবিধা হবে।

আরও পড়ুন: বাজেটে কৃষকদের জন্য হতে পারে বড় ঘোষণা!

আরও পড়ুন: বাজেটের আগেই ক্ষোভে ফুঁসছে বিরোধীরা, কারণ লুকিয়ে অধিবেশনের প্রথম দু-দিনে!

কোভিড রিলিফ -

করোনা মহামারীর প্রভাব এবং বর্তমানে করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের প্রভাবের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে কোভিড রিলিফের দিকে গুরুত্ব আরোপ করা। করোনার প্রভাবের কথা মাথায় রেখে কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত চিকিৎসা এবং হেলথকেয়ার সেক্টরের জন্য বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করা। বাইরের বিভিন্ন দেশ যেমন আমেরিকা, ব্রিটেন, কানাডা ইত্যাদি দেশে করোনার চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন ধরনের মেডিক্যাল উপকরণ, ওষুধ, টেস্টিং কিট ইত্যাদির ওপরে ট্যাক্স ছাড় দেওয়া হয়েছে। ভারতেও এমন ধরনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা উচিত কেন্দ্রীয় সরকারের। ভারতের হেলথকেয়ার সেক্টরের ওপরে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার দরকার প্রয়োজন আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত সঠিক ও উপযুক্ত পলিসির প্রণয়ণ করা।

First published:

Tags: Tax Savings, Union Budget 2022

পরবর্তী খবর