Home /News /business /
Gold Investment: দাম ওঠা-নামা করে, সোনায় বিনিয়োগ করা কতটা উচিত সিদ্ধান্ত হবে?

Gold Investment: দাম ওঠা-নামা করে, সোনায় বিনিয়োগ করা কতটা উচিত সিদ্ধান্ত হবে?

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সোনায় বিনিয়োগ করে কীভাবে ভাল রিটার্ন পাওয়া সম্ভব।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সোনার দাম ক্রমাগত হারে বেড়ে চলেছে । এর ফলে সোনায় বিনিয়োগ করলে ক্ষতির থেকে লাভের সম্ভাবনাই বেশি। সোনায় বিনিয়োগ করার এটাই সেরা সময়। সোনার দাম বাড়লেও এর চাহিদা খুব একটা কম হয়নি। শুধুমাত্র অলঙ্কার হিসাবে নয় সোনাকে না ব্যবহার করে, সোনার ওপরে বিনিয়োগ করে ভাল রিটার্ন পাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সোনায় বিনিয়োগ করে কীভাবে ভাল রিটার্ন পাওয়া সম্ভব।

আরও পড়ুন: নারী দিবসে স্ত্রীর নামে এই স্পেশ্যাল অ্যাকাউন্ট খুললে প্রতি মাসে পাবেন ৪৪,৭৯৩

সোনার দাম -

২০২০ সালের অগাস্ট মাসের পর থেকে ক্রমাগত এক নাগাড়ে দাম বেড়ে চলেছে সোনার। ২০২২ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ১০ গ্রাম সোনার দাম প্রায় ৪৯,৫০৫ টাকা ছিল। ২০০৮ সালেই এর দাম ছিল ১২,৮৮৯.৭৫ টাকা। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে ক্রমাগত হারে বেড়ে চলেছে সোনার দাম। এর ফলে সোনায় বিনিয়োগ করলে আগামী দিনে ভাল রিটার্ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিনিয়োগ -

কম সময়ের জন্য সোনার ওপরে বিনিয়োগ করে বেশি লাভ করার সম্ভাবনা কম। বেশি সময়ের জন্য সোনার ওপরে বিনিয়োগ করলে ভাল রিটার্ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমান বাজারের ভিত্তিতে সোনার ওপরে প্রায় ৫ থেকে ১০ বছরের জন্য বিনিয়োগ করলে ভাল রিটার্ন পেতে পারে বিনিয়োগকারীরা। ২০০১ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত সারা বিশ্বে সোনার চাহিদা বেড়েছে প্রায় ১৫ শতাংশ। এই ২০ বছরে সোনার বাজারে বিভিন্ন ওঠা-নামা থাকলেও, সোনার চাহিদা ক্রমাগত হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও পড়ুন: পার্সোনাল লোন এবং কার লোনের সুবিধা ও অসুবিধাগুলি কী কী ? জেনে নিন বিস্তারিত...

সোনার দাম সমান তালে বেড়ে গেলেও সেই চাহিদায় কোনও ভাটা পড়েনি। এর ফলে ২০ বছরের ঐতিহাসিক পারফর্মেন্সের ওপর নির্ভর করে সোনার ওপরে বিনিয়োগ করা যেতে পারে। দীর্ঘ সময়ের জন্য বিনিয়োগ করার সময় সোনায় বিনিয়োগের প্ল্যান করা দরকার। সোনায় বিনিয়োগ করলে কম সময়ে বেশি রিটার্ন পাওয়া সম্ভব নয়। এর ফলে বেশি রিটার্ন পাওয়ার জন্য সোনায় বিনিয়োগ করা যেতে পারে, কিন্তু সেই বিনিয়োগ লম্বা সময়ের জন্য করতে হবে। দীর্ঘ সময়ের জন্য বিনিয়োগের প্ল্যান করলে সোনা একটি উপযুক্ত মাধ্যম। সোনার ওপরে বিভিন্ন ভাবে বিনিয়োগ করা যেতে পারে। বাজারে বিভিন্ন ধরনের গোল্ড স্কিম রয়েছে। নিজেদের পছন্দ ও প্রয়োজন অনুযায়ী সেগুলো বেছে নেওয়া দরকার।

আরও পড়ুন: সেভিংস অ্যাকাউন্টে টাকা রাখার সুবিধা কী? সুদের হার কত? জেনে নিন খুঁটিনাটি

সোনা ক্রয় করার উপযুক্ত সময় -

এখনই সোনা কেনার উপযুক্ত সময়। কারণ বর্তমানে প্রতি আউন্স সোনার দাম কিছুটা হলেও কম হয়েছে। এই সময় কম দামে তা ক্রয় করে রাখলে, ভবিষ্যতে তা ভাল রিটার্ন দিতে সাহায্য করবে। এই কারণেই এখন সোনা কেনার উপযুক্ত সময়। এখন সোনার ওপরে বিনিয়োগ করে রাখলে, আগামী দিনে এর থেকে ভাল রিটার্ন পাওয়া সম্ভব।

First published:

Tags: Gold, Gold Investment

পরবর্তী খবর