আধার কার্ড নম্বর আসল তো? জেনে নিন কীভাবে বুঝবেন...

আধার কার্ড নম্বর আসল তো? জেনে নিন কীভাবে বুঝবেন...
আপনাকে যে আধার নম্বরটা দেওয়া হয়েছে, সেটা সঠিক কি না বুঝবেন কী ভাবে?

আপনাকে যে আধার নম্বরটা দেওয়া হয়েছে, সেটা সঠিক কি না বুঝবেন কী ভাবে?

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: প্রত্যেক ভারতীয় নাগরিকের কাছে আধার কার্ড একটি জরুরি নথি। কারণ আপাতত এটাই সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য পরিচয়পত্র এবং নাগরিকের ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে চিহ্নিত। ফলে,আপনার আধার কার্ড নম্বর বৈধ কি না সেটা জেনে নেওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু আপনাকে যে আধার নম্বরটা দেওয়া হয়েছে, সেটা সঠিক কি না বুঝবেন কী ভাবে?

    এই জন্যেই আধার কার্ড আপডেট রাখা অত্যন্ত জরুরি। আধার কার্ড আপডেট করার জন্য আপনি আধার এনরোলমেন্ট কেন্দ্রে (আধার সেবা কেন্দ্র) সরাসরি যেতে পারেন। অথবা অনলাইন পরিষেবার মাধ্যমেও আপডেট রাখতে পারেন আধার কার্ড। আর সেটা করতে গেলেই প্রমাণ পাবেন হাতেনাতে- আপনার আধার কার্ড নম্বর সঠিক না কি! কেন না, অনলাইন পরিষেবা পাওয়ার জন্য নথিভুক্ত মোবাইল নম্বর থাকা খুব দরকার।

    আপনাকে যে আধার নম্বর দেওয়া হয়েছে সেটা আসল না কি নকল, সেটা বোঝা যায় আধার নম্বর যাচাই পরিষেবার মাধ্যমে। ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (ইউআইডিএআই) বলছে ভারতীয়রা তাঁদের কর্মীদের পরিচয় যাচাই করার জন্যও নম্বর যাচাইয়ের এই পরিষেবা নিচ্ছেন।


    UIDAI-তরফে জানানো হয়েছে, আধারের খুঁটিনাটি আপডেট করার সময় আপনি আপনার ই-মেল অ্যাড্রেস ও মোবাইল নম্বর যাচাই করতে পারেন যেটা প্রথমবার নথিভুক্ত করার সময় ব্যবহৃত হয়েছে। যদি কোনও কারণে আপনার মোবাইল নম্বর আধারের সঙ্গে নথিভুক্ত না হয়ে থাকে, তাহলে কাছাকাছি কোনও পার্মানেন্ট আধার কেন্দ্রে (পিএসি) যেতে পারেন।

    এ বার দেখে নেওয়া যাক, ইউআইডিএআই ওয়েবসাইটে কী ভাবে যাচাই করবেন আধার নম্বর:১. এই লিঙ্কের মাধ্যমে যেতে হবে ইউআইডিএআই ওয়েবসাইটে- https://resident.uidai.gov.in/offlineaadhaar২. আপনার আধার নম্বর টাইপ করুন, সঙ্গে সেই সিকিউরিটি কোড যা স্ক্রিনে দেখাচ্ছে৩. ক্লিক করুন সেন্ড ওটিপি-তে৪. ওটিপি সেই মোবাইল নম্বরেই আসবে যা আপনি আধার তৈরির সময় নথিভুক্ত করেছিলেন৫. আপনার আধার নম্বর সঠিক হলে একটা নতুন পেজ খুলে যাবে যেখানে আধার নম্বরটা দেখাবে৬. পাশাপাশি আধার কার্ডে আপনার অন্য যে ব্যক্তিগত তথ্যগুলো রয়েছে, সেগুলোও দেখা যাবে

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published:

    লেটেস্ট খবর