• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড সম্পর্কে জেনে নিন এই ৪ বিষয়, সমস্যায় পড়তে হবে না!

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড সম্পর্কে জেনে নিন এই ৪ বিষয়, সমস্যায় পড়তে হবে না!

ন্যাশনাল সেভিংস অর্গানাইজেশন কর্তৃক ১৯৬৮ সালে প্রথমবার চালু করা হয় PPF।

ন্যাশনাল সেভিংস অর্গানাইজেশন কর্তৃক ১৯৬৮ সালে প্রথমবার চালু করা হয় PPF।

ন্যাশনাল সেভিংস অর্গানাইজেশন কর্তৃক ১৯৬৮ সালে প্রথমবার চালু করা হয় PPF।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ন্যাশনাল সেভিংস অর্গানাইজেশন কর্তৃক ১৯৬৮ সালে প্রথমবার চালু করা হয় PPF। এই PPF বা পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড সরকারি ভাবে বৈধ ও অতি পরিচিত একটি ইনভেস্টমেন্ট স্কিম। ১৫ বছরের লক-ইন পিরিয়ডে খোলা হয় এই PPF। কিন্তু PPF-এ কী ভাবে হিসেব করা হয় সুদের হার? কারা খুলতে পারেন এই অ্যাকাউন্ট? আসুন, PPF সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন। কারা খুলতে পারেন PPF অ্যাকাউন্ট: যে কোনও প্রাপ্তবয়স্ক ভারতের বাসিন্দাই খুলতে পারেন PPF অ্যাকাউন্ট। নাবালকদের ক্ষেত্রে একজন অভিভাবক খুলতে পারেন এই অ্যাকাউন্ট। ৫০-৬০ বছরের মধ্যে প্রতিরক্ষা দপ্তর বা সেনায় কর্মরত কোনও ব্যক্তিও অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন, তবে এ ক্ষেত্রে বেশ কিছু শর্তাবলী রয়েছে। তাই অ্যাকাউন্ট খোলার আগে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিন। তবে জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে না। ম্যাচিওরিটি ডেট: PPF-এর ক্ষেত্রে ম্যাচিওরিটি ডেট হিসেব করা হয় একটু আলাদা ভাবে। এ ক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট খোলার তারিখ থেকে নয়, বরং যে অর্থবর্ষে টাকা জমা হয়েছে, সেই অর্থবর্ষের শেষ থেকে ম্যাচিওরিটির তারিখ হিসেব করা হয়। এ ক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট খোলার দিন, মাস বা তারিখের কোনও গুরুত্ব থাকে না। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, কোনও বিনিয়োগকারী ২০১৯ সালের ১ জুলাই প্রথমবার টাকা জমা দিলেন। এ ক্ষেত্রে ১৫ বছরের সময় হিসেব করা হবে ৩১ মার্চ ২০২০ থেকে। অর্থাৎ ম্যাচিওরিটির বছর বা তারিখ হবে ১ এপ্রিল ২০৩৫। সুদের হিসেব: PPF-এর নিয়ম অনুযায়ী, বিনিয়োগকারীদের সর্বদা প্রতিমাসের পাঁচ তারিখে বা তার আগে তাঁদের ইনস্টলমেন্ট জমা দিতে হবে। এর সাহায্যে ওই নির্দিষ্ট মাসের সুদ পান তাঁরা। PPF অ্যাকাউন্টের সুদের হার মাসের পঞ্চম দিন ও শেষ দিনের মধ্যে অ্যাকাউন্টে থাকা ন্যূনতম টাকার উপর নির্ণয় করা হয়। এ বিষয়ে Findoc-র একজিকিউটিভ ডিরেক্টর নীতিন শাহি বলেন, PPF-এ জমা টাকার উপর ভিত্তি করেই সুদের হিসেব করা হয়। তবে সুদের টাকা অর্থবছরের শেষে সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টে ক্রেডিট হয়ে যায়। অর্থাৎ প্রতি বছর ৩১ মার্চ তারিখে সুদের টাকা ক্রেডিট হয়। প্রি-ম্যাচিওর উইথড্রয়াল/লোন: PPF অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে প্রথম সাবস্ক্রিপশনের বছরের শেষ থেকে এক বছর পূর্ণ হওয়ার পর লোন নেওয়া যাবে। লোনের পাশাপাশি টাকা তোলার সুবিধাও পেতে পারেন অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা। এ ক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট যে বছরে খোলা হয়েছিল, সেই বছরের শেষ থেকে পাঁচ বছরের পর টাকা তোলা যাবে। কোনও অ্যাকাউন্ট হোল্ডার চাইলেই আগে থেকে টাকা তুলে নিতে পারেন। তবে এই প্রি-ম্যাচিওরের ক্ষেত্রে আবার কিছু নিয়ম রয়েছে। এ ক্ষেত্রে একজন অ্যাকাউন্টে থাকা মোট টাকার অর্ধেক অর্থাৎ সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত টাকা তুলতে পারেন। তবে একটি আর্থিক বছরে একবারই হবে এই উইথড্রয়াল বা টাকা তোলার কাজ।

    Published by:Akash Misra
    First published: