Home /News /business /
GST Council Meeting: জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে এমএসএমই সেক্টরের বড়সড় ফায়দা! অনলাইন বিক্রেতারাও পাবেন দারুণ সুযোগ-সুবিধা!

GST Council Meeting: জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে এমএসএমই সেক্টরের বড়সড় ফায়দা! অনলাইন বিক্রেতারাও পাবেন দারুণ সুযোগ-সুবিধা!

জিএসটি Council Meeting

জিএসটি Council Meeting

GST Council Meeting: অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হওয়া সেই বৈঠকে সমস্ত রাজ্যের অর্থমন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। সেই বৈঠকে আরও বিভিন্ন ধরনের জিনিসকে জিএসটি (GST)-র আওতায় নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: জিএসটি কাউন্সিল (GST Council)-র ৪৭-তম বৈঠক শেষ হয়েছে বুধবারই। চণ্ডীগড়ে অনুষ্ঠিত এই জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠক (GST Council Meeting)-এ বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হওয়া সেই বৈঠকে সমস্ত রাজ্যের অর্থমন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। সেই বৈঠকে আরও বিভিন্ন ধরনের জিনিসকে জিএসটি (GST)-র আওতায় নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও জিএসটি কাউন্সিলের এই বৈঠকে এমএসএমই (MSME)-র জন্যও বড় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পরে ডেলয়েট ইন্ডিয়া (Deloitte India)-র ইনডিরেক্ট ট্যাক্স পার্টনার এবং লিডার মহেশ জয়সিং জানিয়েছেন যে, জিএসটি কাউন্সিলের নেওয়া সিদ্ধান্ত এমএসএমই (MSME)-র জন্য অত্যন্ত উপকারী। তিনি জানিয়েছেন যে, অনলাইন বিক্রেতাদের কম্পোজিশন স্কিমের অধীনে আন্তঃ-রাজ্য বিক্রয় বা সেলসের ক্ষেত্রে ৪০ লক্ষ টাকা এবং ১.৫ কোটি টাকার সীমার ছাড় বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে সেই সকল এমএসএমই সেক্টরের ক্ষেত্রে সুবিধা হবে। একই সঙ্গে এই সুবিধার জন্য বহু বিক্রেতা অফলাইন থেকে অনলাইনের দিকে শিফট করে যাবে।

আরও পড়ুন : পয়লা জুলাই কি ব্যাঙ্ক বন্ধ? জুলাই মাসে ১৪ দিন Bank Holiday! দেখুন তালিকা

রেজিস্ট্রেশনে ছাড়: সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, বস্তু এবং সেবা-র জন্য ৪০ লক্ষ টাকা থেকে ২০ লক্ষ টাকা অবধি ব্যবসার জন্য অনিবার্য রেজিস্ট্রেশন নিয়মকে ছাড় দেওয়া হয়েছে। এর ফলে প্রায় ১.২ লক্ষ ছোট করদাতার লাভ হবে।

নতুন যোজনা: জিএসটি কম্পোজিশন স্কিম করদাতাদের জন্য জিএসটি-র অধীনে এক সরল এবং সহজ যোজনা। ছোট ব্যবসায়ীদের বারবার রিটার্ন দাখিল এবং বিভিন্ন ধরনের নথিপত্রের রেকর্ড রাখার থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্যই এই স্কিম চালু করেছে সরকার। এই যোজনাকে সেই সকল করদাতা বেছে নিতে পারেন, যাঁদের আয় বছরে ১.৫ কোটি টাকার কম। এই স্কিমের মাধ্যমে বস্তু সংক্রান্ত ব্যবসায় ১ শতাংশ ট্যাক্স এবং সেবা সংক্রান্ত ব্যবসায় সেই ক্যাটাগরি অনুযায়ী ৫ থেকে ৬ শতাংশ ট্যাক্স দিতে হয়।

আরও পড়ুন : GST কাউন্সিলের বিরোধিতা করলে বড় অসুবিধায় পড়তে হবে রাজ্যকে, হুঁশিয়ারি সুশীল মোদির!

ছাড়ের সীমাকে সরকার দ্বিগুণ করেছে:

প্রথমে জিএসটি-তে ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য ছাড়ের সীমা ছিল ২০ লক্ষ টাকা। ১ কোটি টাকার ব্যবসা হলে ১ শতাংশ হারে জিএসটি-র কম্পোজিশন স্কিমের সুবিধা পাওয়া যেত। ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে যখন অরুণ জেটলি অর্থমন্ত্রী ছিলেন, তখন সেই সীমা বাড়ানো হয়েছিল। জিএসটি কাউন্সিলের ৪৭-তম বৈঠকের শেষে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন যে, জিএসটি পরিষদ ট্যাক্স ছাড় এবং ট্যাক্স স্ল্যাবের পরিবর্তন স্বীকার করে নিয়েছে। জিএসটি পরিষদের সিদ্ধান্ত আগামী ১৮ জুলাই থেকে লাগু হবে।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: GST

পরবর্তী খবর